‘মানবিক কারণে খালেদাকে বিদেশে চিকিৎসার অনুমতি দেওয়া উচিত’

ভাসানী অনুসারী পরিষদের চেয়ারম্যান ও গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেছেন, তর্ক-বিতর্ক না করে মানবিক কারণে দেশের মঙ্গলের জন্য খালেদা জিয়াকে বিদেশে চিকিৎসার অনুমতি দেওয়া উচিত। তাকে নিয়ে সরকারের এমন চালাকি করা মোটেও উচিত হচ্ছে না।

রোববার (৯ মে) দুপুরে টাঙ্গাইলের সন্তোষে ঈদুল ফিতর উপলক্ষে অসহায় মানুষের মাঝে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ ও মজলুম জননেতা মাওলানা আবদুল হামিদ খান ভাসানীর মাজার জিয়ারত শেষে তিনি সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন।

ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেন, খালেদা জিয়ার যে অবস্থা, এদেশে চিকিৎসা হচ্ছে না। লাঞ্চে পানি আসা খুবই খারাপ লক্ষণ। যে কোনো সময় কোনোকিছু হতে পারে। এটা দেশের জন্য খুব বিপজ্জনক।

তিনি আরও বলেন, যখন আইন মন্ত্রণালয়ে চিঠি পাঠিয়েছে, তখনই অনুমতি দিতে পারতো সরকার। এটাতো আধাঘণ্টার কাজ। মানবিক কারণে হলেও বেগম খালেদা জিয়াকে বিদেশে যাওয়ার অনুমতি দেওয়া উচিত।

ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেন, ঈদে মানুষ যেভাবে বাড়ি ফিরছে, তাতে করোনা রোগ আরও বাড়বে। বড় লোকেরা প্লেনে যাবে, নিজের গাড়িতে যেতে পারবে। আর সাধারণ মানুষ বছরে একটা ঈদ করতে পারবে না, এটা কি হয়? তাদের পরিষ্কার করে বলা যেতো, যারা বাড়ি যাবে, তারা একদিন আগে পরীক্ষা করে নেন।

সরকার করোনায় মৃত্যু কম দেখানোর জন্য পরীক্ষাও কম করছে বলে অভিযোগ করেন জাফরুল্লাহ চৌধুরী।

ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেন, আজকে এই সময়ে যারা দেশ চালাচ্ছে, তাদের ধমক দিয়ে কথা বলার একমাত্র মানুষ ছিলেন মাওলানা আবদুল হামিদ খান ভাসানী। উনাকে অনুসরণ করলে জাতি জীবিত থাকবে, ভালোভাবে বেঁচে থাকবে।

এ সময় তার সঙ্গে উপস্থিত ছিলেন, ভাসানী অনুসারী পরিষদের মহাসচিব শেখ রফিকুল ইসলাম বাবলু, প্রেসিডিয়াম সদস্য নঈম জাহাঙ্গীর, গণস্বাস্থ্যের প্রেস উপদেষ্টা জাহাঙ্গীর আলম মিন্টু প্রমুখ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *