কারিনা সরে যাওয়াতেই ঘুরে যায় দীপিকার ক্যারিয়ার

করিনা কাপুর খানের জন্য ঘুরে গিয়েছিল দীপিকা পাড়ুকোনের ক্যারিয়ার। তার জন্যই অন্যতম সেরা চরিত্রে অভিনয়ের সুযোগ পেয়েছিলেন দীপিকা। সঞ্জয় লীলা বানসালীর ‘রামলীলা’ ছবিতে লীলার চরিত্রে প্রথম অভিনয় করার কথা ছিল কারিনার। কিন্তু শেষ মুহূর্তে পিছিয়ে আসেন তিনি। তারপর দীপিকার কাছেই ছুটে যেতে হয় সঞ্জয়কে। এক সাক্ষাৎকারে কারিনা বলেছিলেন অন্যান্য নায়িকাদের জন্য ছবি ছেড়ে দেওয়ার বিষয়ে একমাত্র তিনিই গর্ব করতে পারেন। ২০১৩ সালে ‘গোরি তেরে প্যায়ার ম্যায়’ ছবিটি করার জন্য ‘রামলীলা’তে অভিনয়ের সুযোগ ছেড়ে দিয়েছিলেন তিনি। বক্স অফিসে ‘রামলীলা’র ভাঁড়ার উপচে পড়লেও, কারিনার ছবি মুখ থুবড়ে পড়ে।
এই সিদ্ধান্তের কারণে পরবর্তী সময় নিজেকে ‘পাগল’ আখ্যা দিয়েছিলেন কারিনা। এর আগেও ‘কাল হো না হো’ ছবিতে ‘নয়না’র চরিত্রে অভিনয় করার কথা ছিল এই নায়িকার। পরিচালক করণ জোহরের সঙ্গে বন্ধুত্বে ছেদ পড়ায় সে সময় কারিনা সরে আসেন। তখন সেই চরিত্রটি করেন প্রীতি জিনতা। মুডের উপর নির্ভর করেই কাজ করেন কারিনা। তাই অনেক ছবি সই করেও, পরে সেগুলিতে কাজ করেননি অভিনেত্রী। তিনি ভেবেছিলেন, পরবর্তীকালে নিশ্চয়ই সঞ্জয়ের সঙ্গে কাজের সুযোগ আসবে তার। কিন্তু এখনও পর্যন্ত তার সেই ভাবনা বাস্তবে রূপায়িত হয়নি। ‘রামলীলা’র সেট তৈরি হয়ে গিয়েছিল। কিন্তু শুটিং শুরু হওয়ার ১০দিন আগে সরে আসেন কারিনা। একই সমস্যার অনেক বছর আগেও পড়েছিলেন সঞ্জয়। ‘ইনশাল্লাহ’ ছবি থেকেও একই ভাবে সরে এসেছিলেন সালমান। ‘রামলীলা’তে ফের সেই কারিনা-সালমান জুটিকে নিয়েই কাজ করার কথা ভেবেছিলেন তিনি। কিন্তু সে বারও দুই তারকা তাকে নিরাশ করলে, নতুন জুটির জন্ম হয় বলিউডে। সঞ্জয়ের ভাবনায় অবশেষ রণবীর সিং এবং দীপিকা পাড়ুকোণ হয়ে ওঠেন বলিউডের রামলীলা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

16 + 20 =

Translate »