নাইজেরিয়ায় বন্দুকধারীদের হামলায় ২৩ গ্রামবাসী নিহত

নাইজেরিয়ার কাদুনা প্রদেশে অন্তত চারটি জায়গায় বন্দুকধারীর হামলায় ২৩ জন গ্রামবাসী নিহত হয়েছে। এ হামলায় আহত হন আরও বেশ কয়েকজন।

তাদেরকে উদ্ধার করে স্থানীয় হাসপাতালে নেয়া হয়েছে। স্থানীয় কর্তৃপক্ষ জানায়, পুলিশের গুলিতেও মঙ্গলবারের হামলাকারীদের মধ্য থেকে অন্তত ১০ জনের মৃত্যু হয়েছে। এছাড়াও, গ্রামের এক বাসিন্দার হামলায় প্রাণ গেছে আরও এক হামলাকারীর।

কারা এ হামলা চালিয়েছে সে বিষয়ে এখনও স্পষ্ট কোন ধারণা পাওয়া না গেলেও নাইজেরিয়ার পুলিশ বিষয়টি তদন্ত করছে।

দেশটির সরকারের বরাতে সিজিটিএন ও আল জাজিরা জানিয়েছে, বন্দুকধারীদের একটি দল প্রথমে কুতেমেসি গ্রামে মোটরসাইকেলে এসে হানা দেয়। এ সময় তাদের হামলায় ১৪ জন নিহত হয় এবং বেশ কয়েকজন আহত হয়। বন্দুকধারীরা বেশ কয়েকটি দোকান লুট করে।

একই দিন বন্দুকধারীরা কুজেনি গ্রামেও তাণ্ডব চালায়। সেখানে তারা পাঁচজনকে হত্যা করে এবং কয়েকটি মালঘর, বাড়ি জ্বালিয়ে দেয়।

উত্তর পশ্চিম নাইজেরিয়ার গ্রামগুলোতে গ্যাং সদস্যরা প্রায়ই হানা দিয়ে গরু, ছাগল চুরি করে এবং মুক্তিপণ আদায়ের জন্য অপহরণ করে। এ ছাড়া তারা বাড়ি ঘরে আগুন ধরিয়ে দেয়। কাদুনা রাজ্য সরকার আরুয়ান নিরাপত্তা এজেন্সি থেকে অস্ত্রধারী কর্তৃক ১৯ জন নিহতের খবর পেয়েছেন বলে জানান।

ইন্টারন্যাশনাল ক্রাইসিস গ্রুপের রিপোর্ট অনুসারে, নাইজেরিয়ার উত্তর-পশ্চিম অঞ্চলজুড়ে ২০১১ সাল থেকে সহিংসতায় আট হাজার মানুষ নিহত হয়েছে। এতে বাস্তুচ্যুত হয়েছে প্রায় দুই লাখেরও বেশি মানুষ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

one × five =

Translate »