আফ্রিকায় ইবোলার প্রকোপ বেড়েছে, নারীর মৃত্যু

আফ্রিকার পশ্চিম ডিআর কঙ্গোর বুটেম্বো শহরের কাছে এক নারী ইবোলা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন। দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় বিষয়টি নিশ্চিত করেছে। শহরটিতে একটি অনুসন্ধানী দল পাঠানো হয়েছে বলে কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে।

প্রায় তিন মাস আগে দেশটির পশ্চিমাঞ্চলে সর্বশেষ ইবোলায় আক্রান্ত ব্যক্তি শনাক্ত হয়। ভাইরাসের উপসর্গ হিসেবে আচমকা জ্বর, দুর্বলতা, শরীর ব্যথা, গলা ব্যথা হচ্ছে। সেখান থেকে বমি, ডায়রিয়া এবং ভেতরে ও বাইরে রক্তক্ষরণ দেখা দেয়।

কেবল অসুস্থ ব্যক্তির শরীর থেকে নির্গত তরলের মাধ্যমে অপর ব্যক্তির শরীরে প্রবেশ করতে পারে অর্থাৎ অসুস্থ ব্যক্তির রক্ত, লালা, বীর্য, বমি, মল, থুতু, শ্লেষ্মা বা শরীর থেকে অন্য কোনো তরল স্পর্শ করার মাধ্যমে যে কেউ এই ভাইরাস দ্বারা আক্রান্ত হতে পারে।

২০১৩-২০১৫ সাল পর্যন্ত পশ্চিম আফ্রিকায় এটি মহামারি রূপ নেয়। এই নিয়ে মোট ১২বার ইবোলা সংক্রমণ ঘটল ডিআর কঙ্গোতে। বাদুড়কে এই ভাইরাসের বাহক হিসেবে মনে করা হয়। এই ভাইরাসে মৃত্যুহার অনেক বেশি, আক্রান্ত রোগীর প্রায় ৮৩-৯০ শতাংশ মৃত্যুবরণ করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

17 − 7 =

Translate »