চসিক মেয়রকে কাদের মির্জা ত্যাগী লোকটা কেন ভোট ডাকাতি করতে গেলেন?

চট্টগ্রামের নবনির্বাচিত মেয়রকে কথা বলার আগে চিন্তা করে বলার পরামর্শ দিয়েছেন বসুরহাট পৌরসভার আলোচিত মেয়র আবদুল কাদের মির্জা। আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক, সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের ছোট ভাই আবদুল কাদের মির্জা বলেছেন, আপনি এত বড় নেতা, প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার আগে আপনার নামও শুনিনি। কথা বলার আগে চিন্তা করে বলবেন। যদি নিজেকে অভিজ্ঞ মনে করেন, ত্যাগী মনে করেন, তা হলে ভাষাজ্ঞান রেখে কথা বলবেন।

সোমবার রাত ৮ টায় ফেসবুক লাইভে তিনি এসব কথা বলেন। কাদের মির্জা বলেন, আমি যচট্টগ্রামে ভোটডাকাতির কথা বলেছিলাম, তাই চট্টগ্রামের মেয়র আমাকে বলেছেন অর্বাচীন বালক। অর্বাচীন বালক মানে হচ্ছে, আমি অবুঝ বালক। আপনি নিজেকে ত্যাগি দাবি করেছেন। ৬৪ বছর রাজনীতি করেন। এই ত্যাগী লোকটা কেন ভোট ডাকাতি করতে গেলেন? এটি আপনার কাছে আমার প্রশ্ন– কেন মানুষের ভোটের অধিকার হরণ করলেন?

বসুরহাট পৌরসভা নির্বাচন সুষ্ঠু হয়েছে দাবি করে তিনি বলেন, এই অবুঝ বালকটা অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচনের মাধ্যমে গত ১৬ই জানুয়ারি বসুরহাট নির্বাচনে কাস্টিং ভোটের ৭৭ ভাগ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছে। এটি আপনাকে স্মরণ করে দিতে চাই।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের ছোট ভাই আবদুল কাদের মির্জা বলেন, ওবায়দুল কাদের সাহেব আমাকে বলেছেন– তুমি এলাকার বাইরে কারও বিরুদ্ধে কথা বলবে না। নির্বাচন নিয়ে কথা বলবে না। আমি তার কথা মেনে নিয়েছি, আমি বলেছি– আমি এক মাস দেখব। যদি কোনো পরিবর্তন না হয় তখন আমি কথা বলব।

এ প্রসঙ্গে তিনি আরও বলেন, আমাকে কথা বন্ধ করতে বলেন, তারা কীভাবে কথা বলেন, এই সাহস কোথায় পায়। তারা বলতে পারবে, আমি বলতে পারব না। আমি কি এ দেশের নাগরিক নই? আমার দলের ঘোষণাপত্রে মতপ্রকাশের স্বাধীনতার কথা বলা আছে। আমি স্পষ্ট ভাষায় বলতে চাই, রক্ত চক্ষু দেখাবেন না, চেষ্টা করবেন না। আমি এতে ভয় পাই না।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

18 + 10 =

Translate »