তৃতীয় দফায় ভাসানচরে রোহিঙ্গাদের যাত্রা শুরু

কক্সবাজারের শরণার্থী শিবিরগুলো থেকে স্বেচ্ছায় তৃতীয় দফায় ভাসানচরের উদ্দেশে যাত্রা শুরু করেছে রোহিঙ্গাদের আরেকটি দল।

আজ বৃহস্পতিবার দুপুর সোয়া ১২টায় উখিয়া ডিগ্রি কলেজ মাঠ থেকে তাদের বহনকারী ১৭টি বাস চট্টগ্রামের উদ্দেশ্যে রওনা হয়েছে।

জানা গেছে, পথের নিরাপত্তায় বিকল্প হিসেবে আরও একটি খালি বাস এই বহরে সংযুক্ত আছে। মালপত্র বহন করছে কয়েকটি ট্রাক। তবে বাসগুলোতে ঠিক কতজন রোহিঙ্গা উঠেছেন তা জানা যায়নি।

র‌্যাবের আইন ও গণমাধ্যম শাখার পরিচালক লেফটেন্যান্ট কর্নেল আশিক বিল্লাহ এসব তথ্য জানিয়ে বলেন, রোহিঙ্গাদের স্থানান্তরে আগের মত এবারও তারা নিরাপত্তা দিচ্ছেন।

কক্সবাজারের জেলা প্রশাসক মো. মামুনুর রশীদ বলেন, দুপুর ১২টার দিকে রোহিঙ্গাদের একটি দল বাসে করে ভাসানচরের উদ্দেশে উখিয়া ত্যাগ করেছে। সেখানে কতজন রোহিঙ্গা আছে সেটা এখন বলা মুশকিল। দিন শেষে মোট কতজন যাচ্ছেন সেটা বলা যাবে। ধাপে ধাপে রোহিঙ্গাদের যারা যেতে ইচ্ছুক তাদের পাঠিয়ে দেওয়া হচ্ছে।

কতজন রোহিঙ্গা তৃতীয় যাত্রায় ভাসানচর যাচ্ছেন, এর আনুষ্ঠানিক কোনো বক্তব্য পাওয়া না গেলেও নাম প্রকাশ না করার শর্তে এক কর্মকর্তা বলেছেন, অন্তত দেড় হাজার রোহিঙ্গা তৃতীয় দফায় স্বেচ্ছায় ভাসানচর যেতে আগ্রহী। বৃহস্পতিবার তাদেরই বাসে করে চট্টগ্রামে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে। পরে সেখান থেকে তাদের ভাসানচরে স্থানান্তরের ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যার মধ্যে বাসগুলো চট্টগ্রামের বিএন শাহীন কলেজের ট্রানিজট ক্যাম্পে পৌঁছাবে। সেখানে চূড়ান্ত প্রক্রিয়া শেষে নৌবাহিনীর ব্যবস্থাপনায় শুক্রবার তাদের জাহাজে তোলা হবে। ২৯ জানুয়ারি তারা ভাসানচরে পৌঁছাবেন।

রোহিঙ্গাদের যাতায়াত নিশ্চিত করতে ঘুমধুম ট্রানজিট ক্যাম্প থেকে উখিয়া ডিগ্রি কলেজ ক্যাম্পাস পর্যন্ত এলাকাজুড়ে ব্যাপক নিরাপত্তার ব্যবস্থা নিয়েছে আইন-শৃংখলা বাহিনী। সেখানে সাধারণ মানুষের চলাচলেও বিধি-নিষেধ আরোপ করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

15 − 14 =

Translate »