বাংলাদেশ-ওয়েস্ট ইন্ডিজ সিরিজ- ক্যাম্প শুরু ১০ই জানুয়ারি

গুঞ্জন ছিল ইংরেজি নববর্ষের প্রথম দিনই ওয়েস্ট ইন্ডিজ সিরিজের জন্য টাইগারদের প্রাথমিক দল ঘোষণা করা হবে। আর এই সিরিজ সামনে রেখে ক্যাম্প শুরু হবে ৭ই জানুয়ারি। তবে জাতীয় দলের প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদিন নান্নু জানিয়েছেন নতুন বছরের প্রথম সপ্তাহে ক্যারিবীয়দের বিপক্ষে প্রাথমিক দল ঘোষণা করবে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। আর ক্যাম্প শুরু হবে ১০ই জানুয়ারি।

গতকাল তিনি বলেন, ‘আমরা এখনো প্রাথমিক দলটি তৈরি করছি। কাজ শেষ করতে পারিনি। আশা করি ৪ থেকে ৬ই জানুয়ারির মধ্যে দল ঘোষণা করে দিতে পারবো। আর আমাদের ক্যাম্প শুরু করবো ১০ই জানুয়ারি।

সেখানেই ফিটনেস টেস্ট হবে। তার আগে সবার কোভিড-১৯ পরীক্ষা করে ক্যাম্পে নেয়া হবে। যারা নেগেটিভ হবে তারাই ক্যাম্পে থাকবে। আমাদের পরিকল্পনা সেটাই। যাতে ক্যাম্পে কোনো ধরনের ঝুঁকি না থাকে। এছাড়াও এই বিষয়ে মেডিক্যাল বিভাগ তো কাজ করছে।’ অন্যদিকে টাইগারদের ক্যাম্প শুরুর দিনই ঢাকায় পা রাখবে ক্যারিবীয় দল। পরদিন শুরু হবে তাদের করোনা পরীক্ষার কার্যক্রম। সেটি শেষ হলেই সফরকারীরা অনুশীলন শুরু করতে পারবে।

১৮ই জানুয়ারি ক্যারিবীয়রা একটি প্রস্তুতি ম্যাচ খেলবে বাংলাদেশ ক্রীড়া শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে (বিকেএসপি)। ওয়ানডে সিরিজ সামনে রেখে প্রস্তুতি ম্যাচের আগেও দুই দলের দ্বিতীয় দফা করোনা পরীক্ষা হবে বলে জানিয়েছেন বিসিবির মেডিক্যাল বিভাগের প্রধান চিকিৎসক দেবাশিষ চৌধুরী। তিনি বলেন, ‘ওয়েস্ট ইন্ডিজ দল যেদিন ঢাকায় আসবে যদি সুযোগ থাকে তাহলে সেদিন থেকেই কোভিড ১৯ নমুনা সংগ্রহ শুরু করবো।

তবে যদি রাতে আসে তাহলে কাজ শুরু করবো পরের দিন থেকে। এছাড়াও আমরা প্রস্তুতি ম্যাচের আগে তাদের আরো একটি টেস্ট করাবো। বাংলাদেশ দলের জন্যও একই ব্যবস্থা। আমরা এখন পর্যন্ত একটি পরিকল্পনা করে রেখেছি। তবে সময় ও পরিস্থিতি বুঝে সেখানে হয়তো আরো কিছু বিষয় সংযুক্ত হতে পারে।’
এই সিরিজে কেমন হতে পারে বাংলাদেশ দল তা নিয়ে গুঞ্জনের শেষ নেই।

বিশেষ করে মাশরাফি বিন মুর্তজা ওয়ানডে দলে থাকবেন কিনা সেটিও বড় আলোচনার বিষয়। শুধু তাই নয়, টেস্ট সিরিজের আগে অধিনায়ক মুমিনুল হক সৌরভ ও স্পিনার নাঈম হাসান ফিট হবেন কিনা তা নিয়েও আছে প্রশ্ন। দল নিয়ে প্রধান নির্বাচক বলেন, ‘আমরাতো সেরা দলই করবো। প্রাথমিক যে তালিকা দিবো, সেখান থেকেই মূল স্কোয়াড ঘোষণা হবে। আর কেমন দল হতে পারে বা কারা থাকবে সবই নিয়ে আমাদের আলোচনা এখনো চলছে। তাই সময়ের আগে কোনো কিছু বলা ঠিক হবে না।’

মাশরাফিকে দলে নিতে এরই মধ্যে ভক্তরা আন্দোলনও শুরু করেছে। কিন্তু ৩৮ বছর বয়সী এই পেসারকে ওয়ানডে দলে জায়গা দিলে তরুণ বা নতুনদের সম্ভাবনা ক্ষীণ হয়ে আসে। তবে জানা গেছে, যদি দেশের সাবেক সফল এই অধিনায়ক এই সিরিজে অবসরের ঘোষণা দেন তাকে নিয়ে হয়তো বিবেচনা করতে পারে বিসিবি। যদিও এ বিষয়ে কেউ মুখ খুলতে রাজি নয়।

মার্চের পর বাংলাদেশ দল কোনো আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলেনি। তাই দল ঘোষণাটাও নির্বাচকদের জন্য বেশ জটিল। সবশেষ ঘরোয়া ক্রিকেট আসর বিসিবি ওয়ানডে প্রেসিডেন্টস কাপ ও বঙ্গবন্ধু টি-টোয়েন্টির পারফরম্যান্স বিবেচনায় দলে সুযোগ হতে পারে বেশ কয়েকটি নতুন মুখের। এর মধ্যে পেসার শরিফুল ইসলামের নাম অন্যতম।

তবে জানা গেছে, দীর্ঘদিন পর আন্তজাতিক ম্যাচ খেলবে বাংলাদেশ তাই বড় ধরনের পরিবর্তন আসবে না ওয়ানডে দলে। নয়া অধিনায়ক তামিম ইকবালকে দেয়া হবে অভিজ্ঞ দলই। লিটন দাস, সৌম্য সরকার, মুশফিকুর রহীম, মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ, মোহাম্মদ মিঠুন, সাব্বির রহমান রুম্মান, আফিফ হোসেন ধ্রুব, রুবেল হোসেন, মোস্তাফিজুর রহমান, তাসকিন আহমেদের মতো তরুণ ও অভিজ্ঞদের ওপর আস্থা রাখতে চায় নির্বাচকরা। তবে একটি দুটি চমক থাকতে পারে এমনটাও আভাস পাওয়া গেছে নির্বাচকদের কাছ থেকে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

13 − twelve =

Translate »