ভেঙে যাচ্ছে তমার সংসার

ভেঙে যাচ্ছে চিত্রনায়িকা তমা মির্জার সংসার। ডিভোর্সের পথে হাঁটছেন এই অভিনেত্রী। তিনি নিজেই এমনটা জানালেন। তার ভাষ্য, খুব শিগগিরই আমি আমার স্বামী হিশাম চিশতিকে তালাকের কাগজপত্র পাঠাবো। আমার আইনজীবীর সঙ্গে এই বিষয়ে কথা বলেছি। এরমধ্যে ডিভোর্সের কাগজপত্র তৈরি করা হয়েছে। চলতি সপ্তাহে তাকে তালাকনামা পাঠিয়ে দেবো। সত্যি বলতে কী, তার সঙ্গে সংসার করা সম্ভব না।

এই অভিনেত্রী আরো বলেন, আমি এর আগেও তাকে একবার তালাক দিতে চেয়েছি। বিয়ের ছয়মাসের মাথায় তালাকের সিদ্ধান্ত নেই। সেই সময় তার পরিবারের সবার অনুরোধে তালাক থেকে সরে আসি। কিন্তু এরপরেও সে নিজেকে শুধরে নিতে পারেনি। তাই আমাকে এই সিদ্ধান্ত নিতে হয়েছে। গত বছর মে মাসে বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত কানাডীয় ব্যবসায়ী হিশাম চিশতির সঙ্গে বিয়ের বন্ধনে আবদ্ধ হন তমা। কিন্তু বেশিদিন এক থাকতে পারছেন না এই দম্পতি। এরইমধ্যে একে অপরের বিরুদ্ধে থানায় মামলাও করেন।

মামলায় হিশাম চিশতি উল্লেখ করেছেন পাওনা টাকা চাওয়ায় তাকে হত্যার চেষ্টা করেন তমা ও তার পরিবার। মামলা করার পরেই হিশাম আবার দেশ ছেড়ে কানাডায় চলে যান। তবে হিশামের মামলাকে মিথ্যা বলছেন তমা। তিনি বলেন, আমার নামে হিশাম মিথ্যা অভিযোগ করছেন। যার কোনোটি সত্যি নয়। সে নিজেই আমাকে বিভিন্নভাবে নির্যাতন করতো। আমি তার নামে থানায় তিনটি মামলা করেছি। একটি হলো নারী নির্যাতন মামলা, অন্যটি যৌতুক মামলা।

এ ছাড়া ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনেও তার নামে মামলা আছে। সে বিভিন্ন সময় আমার আপত্তিকর ছবি প্রকাশ করবে বলে আমাকে হুমকি দিয়ে আসছে। প্রসঙ্গত, তমা মির্জা ‘নদীজন’ চলচ্চিত্রে অনবদ্য অভিনয়ের স্বীকৃতি হিসেবে সেরা পার্শ্ব-অভিনেত্রী বিভাগে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পেয়েছিলেন। কাজ করেছেন ‘বলো না তুমি আমার’, ‘ও আমার দেশের মাটি’, ‘অহংকার’সহ আরো কয়েকটি ছবিতে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

5 × three =

Translate »