মাঠেই সতীর্থকে মারতে গেলেন মুশফিক

বাইশ গজের ক্রিকেটে সব খেলোয়াড়ের মেজাজ সবসময় এক থাকে না। অনেকেই খেলার সময় মেজাজ হারিয়ে বসেন, যা পরবর্তীতে জন্ম দেয় আলোচনা-সমালোচনার। সম্প্রতি মাঠেই সতীর্থকে মারতে গিয়ে বিতর্কের জন্ম দিয়েছেন বেক্সিমকো ঢাকার অধিনায়ক মুশফিকুর রহিম।

বঙ্গবন্ধু টি-২০ কাপে ঢাকার অধিনায়কত্ব করা মুশফিককে শুরু থেকেই আক্রমণাত্মক দেখা গেছে। তবে এলিমিনেটর পর্বে বরিশালের বিপক্ষে ম্যাচে হয়তো একটু বেশিই ক্ষ্যাপাটে ছিলেন তিনি।

 

ম্যাচের ১৭ তম ওভারে শফিকুল ইসলামের বলে পুল করতে গিয়ে ক্যাচ তুলে দেন বরিশালের ব্যাটসম্যান আফিফ হোসেন। দারুণ ব্যাটিং করা আফিফের ক্যাচটি উঠে উইকেটের পেছনে, তবে একটু দূরেই। হাওয়ায় বল ভাসতে থাকলে তালুবন্দি করতে একদিক থেকে দৌড়ান মুশফিক, অন্যদিক থেকে এগিয়ে আসেন স্পিনার নাসুম আহমেদ।

বারবার নাসুমকে কাছে না আসতে ইশারা করছিলেন মুশফিক। এক পর্যায়ে মুশফিক ক্যাচ নিলেও বলের দিকে চেয়ে দৌড়াতে থাকা নাসুমের সঙ্গে তিনি ধাক্কা খান। সে সময় আবেগকে নিয়ন্ত্রণে রাখতে পারেননি ঢাকার অধিনায়ক। ক্যাচ নিয়েই নাসুমের দিকে অনেকটা ঘুষি মারার ভঙ্গিমা দেখান মুশফিক। সে সময় অধিনায়কের দিকে অপরাধীর মতো দৃষ্টিতে চেয়ে থাকেন নাসুম। পরবর্তীতে সতীর্থরা তাকে সান্তনা দেয়।

 

মুশফিকের ক্ষীপ্ত হওয়ার পেছনে শুধু যে এই কারণ তা নয়। এর আগে শফিকুল ইসলামের বাজে থ্রোর কারণে ইনিংসের শুরুর দিকে জীবন পান আফিফ। পরবর্তীতে আরেকবার সহজ সুযোগ হাতছাড়া করে তাকে রান আউট করতে পারেননি আল আমিন জুনিয়র। দলের এমন ছন্নছাড়া ফিল্ডিংয়েই মূলত রেগে ছিলেন মুশফিক।

এর আগে ব্যাট করতে নেমে ৮ উইকেটে ১৫০ রান করে বেক্সিমকো। যেখানে দলের হয়ে ৩০ বলে ৪৩ রানের দারুণ ইনিংস উপহার দেন মুশফিক। গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচটি ৯ রানে জিতে নিয়েছে তার দল।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *