২৬ ডিসেম্বর থেকে স্নাতক শেষ বর্ষ ও স্নাতকোত্তরের পরীক্ষা

করোনা পরিস্থিতির কারণে গত মার্চ থেকে বন্ধ আছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্লাস-পরীক্ষা। পরিস্থিতি স্বাভাবিক থাকলে চলতি বছরে স্নাতক শেষ হতো ২০১৬-১৭ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থীদের। স্নাতকের শেষ প্রান্তে এসে অনিশ্চয়তার মুখোমুখি হওয়া এসব শিক্ষার্থীর কথা বিবেচনা করে ২৬ ডিসেম্বর থেকে তাঁদের ও মাস্টার্সের আটকে থাকা পরীক্ষা নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ৷

উপাচার্য মো. আখতারুজ্জামানের সভাপতিত্বে ভার্চ্যুয়াল প্ল্যাটফর্মে অনুষ্ঠিত বিশ্ববিদ্যালয়টির একাডেমিক কাউন্সিলের এক সভায়  বৃহস্পতিবার এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। রাতে এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে কর্তৃপক্ষের এ সিদ্ধান্তের কথা জানিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয়ের জনসংযোগ দপ্তর৷

এর আগে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০১৬-১৭ শিক্ষাবর্ষের পরীক্ষাসহ সব একাডেমিক কার্যক্রম দ্রুত শেষ করা ও ৪৩তম বিসিএসে আবেদনের সময় বাড়ানোর দাবিতে দুপুরে রাজু ভাস্কর্যের পাদদেশে মানববন্ধন করেন শিক্ষার্থীরা৷ বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য মো. আখতারুজ্জামানের কার্যালয়ে গিয়ে তাঁরা স্মারকলিপি দেন৷

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, অগ্রাধিকার ভিত্তিতে স্নাতক শেষ বর্ষ ও স্নাতকোত্তরের পরীক্ষাগুলো স্বাস্থ্যবিধি ও সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে ২৬ ডিসেম্বর থেকে অনুষ্ঠিত হবে। শিক্ষার্থীরা নিজ নিজ বিভাগ-ইনস্টিটিউট থেকে সংশ্লিষ্ট পরীক্ষার সময়সূচি জানতে পারবেন। শিক্ষার্থীদের সুবিধার্থে প্রয়োজনে পরীক্ষাগুলো তুলনামূলক কম বিরতিতে বা একই দিনে দুটি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। পরীক্ষার সময়কাল হবে বিদ্যমান নির্ধারিত সময়ের অর্ধেক। একইভাবে ল্যাবকেন্দ্রিক ব্যবহারিক পরীক্ষাগুলোও নেওয়া হবে।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়, বিদ্যমান পরিস্থিতিতে শিক্ষার্থীদের আবাসিক সুবিধা দেওয়া সম্ভব হচ্ছে না বলে সংশ্লিষ্ট বিভাগ-ইনস্টিটিউট নিজ নিজ শিক্ষার্থীদের সঙ্গে যোগাযোগ ও উপস্থিতি নিশ্চিত করে বিভিন্ন পরীক্ষা নেবে। শিক্ষার্থীদের ইনকোর্স-মিডটার্ম ও টিউটোরিয়াল পরীক্ষা অনলাইনে অ্যাসাইনমেন্ট, মৌখিক বা টেকহোম পদ্ধতিতে নেওয়া হবে৷

একাডেমিক কাউন্সিলের এ সভায় বিশ্ববিদ্যালয়ের সহ-উপাচার্য (প্রশাসন) অধ্যাপক মুহাম্মদ সামাদ, সহ-উপাচার্য (শিক্ষা) অধ্যাপক এ এস এম মাকসুদ কামাল, অনুষদগুলোর ডিন, বিভাগগুলোর চেয়ারম্যান, ইনস্টিটিউটগুলোর পরিচালকসহ একাডেমিক কাউন্সিলের সদস্যরা যুক্ত ছিলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *