পরিকল্পিতভাবে সাম্প্রদায়িক দাঙ্গা ছড়ানোর পায়তারা চলছে- ভিপি নুর

সরকার ও তার সহযোগী সংগঠন গুলো পরিকল্পিত ভাবে সামপ্রদায়িক দাঙ্গা সৃষ্টির পাঁয়তারা করছে বলে অভিযোগ করেন ভিপি নুর। গত ৬ ডিসেম্বর ভোররাতে প্রেসক্লাবে অবস্থান রত শিক্ষক ও শ্রমিকদের উপর পুলিশের হামলার প্রতিবাদে আয়োজিত আজকের মানববন্ধনে নুর বলেন, বিজয়ের মাসে আজ শিক্ষক শ্রমিক ও সাংবাদিকদের উপর হামলা করা হয়। “সরকার মুক্তিযুদ্ধের কথা বলে মুক্তিযুদ্ধের চেতনাবিরোধী কাজ করে যাচ্ছে, এভাবে তারা বাংলাদেশ কে একটি একনায়কতান্ত্রিক রাস্ট্রে পরিণত করেছে” তিনি যোগ করেন।

চলমান ভাস্কর্য বিরোধী আন্দোলনকে কেন্দ্র করে তিনি বলেন, আলেম ওলামাগণ নমনীয় হলেও সরকারের বিভিন্ন সহযোগী সংগঠন বিভিন্নভাবে সামপ্রদায়িক সংঘাত লাগাতে উস্কানীমূলক বক্তব্য দিয়ে যাচ্ছেন। মানববন্ধনে উপস্থিত ছাত্র অধিকার পরিষদের ভারপ্রাপ্ত আহবায়ক মুহম্মদ রাশেদ খান বলেন, “করোনায় সব কিছু খুলে দিয়ে শুধু শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রেখে সরকার মূলত শিক্ষা খাতকে ধবংস করার পায়তারা করছে। তিনি অবিলম্বে শিক্ষা খাতকে সচল করার দাবি জানান।

মানববন্ধনে উপস্থিত ছাত্র অধিকার পরিষদের কেন্দ্রীয় যুগ্ম আহবায়ক ফারুক হাসান পুলিশ বাহিনীকে উদ্দেশ্য করে বলেন, সরকারের গদি রক্ষায় যদি আপনারা পেটুয়া বাহিনীর ভূমিকায় অবতীর্ণ হন তবে ছাত্র সমাজ আপনাদের ছেড়ে দেবে না। তিনিবতাদের জণগণের পাশে দাড়ানোর আহবান জানান।

মানব বন্ধনে অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় যুগ্ম আহবায়ক মাহফুজুর রহমান খান, মশিউর রহমানস ছাত্র, যুব ও শ্রমিক অধিকার পরিষদের বিভিন্ন স্তরের নেতৃবৃন্দ। প্রায় দুই শতাধিক নেতৃবৃন্দের উপস্থিতে বক্তারা বলেন, সরকারের বিদায়ঘন্টা বেজে উঠেছে। অবিলম্বে জনগণের ভোটাধিকার ফিরিয়ে দিতে সরকারের কাছে দাবী জানান তারা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

five + two =

Translate »