মাদক আত্মসাতের অভিযোগে এসআই প্রত্যাহার

ভৈরবে জব্দ করা মাদক আত্মসাতের অভিযোগে থানা পুলিশের এক এসআইকে প্রত্যাহার করা হয়েছে। গতকাল সকালে তাঁকে কিশোরগঞ্জ পুলিশ লাইনসে সংযুক্ত করা হয়। প্রত্যাহার হওয়া এসআইয়ের নাম হানিফ সরকার। সাংবাদিকদের এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন কিশোরগঞ্জের পুলিশ সুপার মো. মাশরুকুর রহমান খালেদ।

জানা গেছে, হানিফ সরকার চলতি বছরের ফেব্রুয়ারিতে ভৈরব থানায় যোগ দেন। শহরের ঢাকা-সিলেট সড়কের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে ভৈরব থানা পুলিশের ইমার্জেন্সি ডিউটি (চেক পোস্ট) চালু রয়েছে। এটি দুই পালায় চলে। প্রথম পালা সকাল ৮টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত।

পরেরটি রাত ৮টা থেকে পরের দিন সকাল ৮টা পর্যন্ত। ডিউটিতে একজন এসআই পদমর্যাদার কর্মকর্তা থাকেন। ঘটনার দিন গত সোমবার সকাল ৮টা থেকে রাত ৮টার ডিউটিতে নেতৃত্ব দেন হানিফ সরকার। তাঁর সঙ্গে সঙ্গীয় ফোর্স হিসেবে চারজন কনস্টেবল ছিলেন। এদিন বেলা আড়াইটার দিকে তাঁরা যান ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের সৈয়দ নজরুল ইসলাম সেতুর ভৈরব প্রান্তে। সেখানে গিয়ে কয়েকটি গাড়িতে তল্লাশি চালানো হয়। বেলা তিনটার দিকে একটি বাস থেকে কিছু গাঁজা উদ্ধার করা হয়।

পুলিশ বলছে, উদ্ধার করা গাঁজার পরিমাণ আট কেজি। কিন্তু এসআই হানিফ সরকার জব্দ তালিকায় জব্দ গাঁজার পরিমাণ কম দেখিয়েছেন বলে পুলিশ সুপারের (এসপি) কাছে অভিযোগ যায়। খবর পেয়ে ভৈরব থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. শাহিনকে ঘটনাস্থলে যাওয়ার নির্দেশ দেন এসপি।

পরে ওসি ঘটনাস্থলে গিয়ে অভিযোগের সত্যতা পান। ফলে গত মঙ্গলবার রাত ৮টার দিকে হানিফকে প্রত্যাহার করা হয়। অভিযোগ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে মুঠোফোনে প্রত্যাহার হওয়া এস আই হানিফ সরকার সাংবাদিকদের জানান, তিনি ‘পরিস্থিতির শিকার’।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

four × one =

Translate »