পরবর্তী মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী হচ্ছেন ব্লিংকেন?

মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের আনুষ্ঠানিক ফল প্রকাশের এখনো বেশ দেরি। হার মানতে নারাজ প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প। তবুও সরকার গঠনের প্রস্তুতি শুরু করেছেন নির্বাচনে অনেক এগিয়ে থাকা ডেমোক্র্যাট প্রার্থী জো বাইডেন। মঙ্গলবার নতুন মন্ত্রিসভা ঘোষণা করবেন তিনি।

নির্ভরযোগ্য সূত্রের বরাত দিয়ে নিউইয়র্ক টাইমস জানিয়েছে, এরই মধ্যে যুক্তরাষ্ট্রের গুরত্বপূর্ণ পদ সেক্রেটারি অব স্টেট (পররাষ্ট্রমন্ত্রী), নিরাপত্তা উপদেষ্টা এবং জাতিসংঘে যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিনিধি ঠিক করে ফেলেছেন।

বাইডেন সরকারের পররাষ্ট্রমন্ত্রী হতে পারেন ৫৮ বছর বয়সী কূটনীতিক অ্যান্টনি ব্লিংকেন। ওবামা আমলে তিনি পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের দ্বিতীয় শীর্ষ ব্যক্তি ছিলেন। উপ জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টার দায়িত্বও পালন করেছেন তিনি। নিউইয়র্ক টামইস জানিয়েছে, ট্রাম্প প্রশাসনের দুর্বল কৌশল ও জাতীয়তাবাদী দোলাচলের চার বছর পর আমেরিকার কূটনীতি এবং বিশ্ব নেতাদের একত্রিত করার কাজ করতে হবে তাকে।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী ছাড়াও জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টাও ঠিক করে ফেলেছেন বাইডেন। এই পদে জ্যাক সুলিভানের নাম ঘোষণা করতে পারেন তিনি। এর আগে ভাইস প্রেসিডেন্ট থাকাকালীন বাইডেনের উপদেষ্টা ছিলেন তিনি। এছাড়াও হিলারি ক্লিনটনের অধীনে স্টেট ডিপার্টমেন্টে নীতি পরিকল্পনার প্রধান হিসাবে দায়িত্ব পালন করেছিলেন।

বাইডেনের পরিকল্পনা প্রক্রিয়া জানেন এমন একজন জানিয়েছেন, বাইডেন বিশ্বব্যাপী কূটনৈতিক দায়িত্ব পালনকারী হিসেবে ৩৫ বছর বয়সী লিন্ডা টমাস গ্রিনফিল্ডের নাম ঘোষণা করতে পারেন। জাতিসংঘের প্রতিনিধি হিসেবে তাকে দায়িত্ব দেয়া হতে পারে। এই পদের মর্যাদা মন্ত্রীর সমমানেও করতে পারেন বাইডেন।

এর আগে বাইডেনের মন্ত্রিসভা ঘোষণার কথা জানতে পেরে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন ট্রাম্প। তিনি এক ফেসবুক পোস্টে জানিয়েছেন, ‘জো বাইডেন কেন দ্রুত তার মন্ত্রিসভা গঠন শুরু করেছেন যখন আমার তদন্তকারীরা লাখ লাখ জাল ভোটের সন্ধান পেয়েছেন? এই জাল ভোট বাতিল হলে চারটি রাজ্যের ফল উল্টে যাবে এবং নির্বাচনের ফলও উল্টে যাবে। আশা করি আমাদের নির্বাচনী প্রক্রিয়া এবং দেশ হিসাবে যুক্তরাষ্ট্রের বিশ্বাসযোগ্যতা রক্ষায় আদালত এবং নির্বাচিত জনপ্রতিনিধিরা তাদের সাহস দেখাবেন। বিশ্ববাসী সব দেখছে!’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *