ভাবির পেটে ছুরি মারলেন দেবর!

মেহেরপু প্রতিনিধি: মেহেরপুরের গাংনীতে দেবর আকরামুল হোসেনের ছুরিকাঘাতে ভাবি মালা খাতুন খুন হয়েছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। আজ বৃহস্পতিবার দুপুর ১টায় কুষ্টিয়া মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে তার মৃত্যু হয়। এর আগে সকাল ১০টায় উপজেলার বামুন্দী চেরাগিপাড়ার নিজ বাড়িতে ছুরিকাঘাতের ঘটনা ঘটে।

পুলিশ বলছে, আকরামুল হোসেন মাদকাসক্ত। নিহত মালা খাতুন বামুন্দী চেরাগিপাড়া একরামুল হকের স্ত্রী। একরামুল হক ও আকরামুল হোসেন বামুন্দী চেরাগি পাড়ার সলেমান মিয়ার ছেলে।

প্রতিবেশীরা জানান, আজ আকরামুল হোসেন তার দুই বছরের ছোট ছেলেকে মারধর করছিল। এ সময় তার ভাবি মালা খাতুন বাধা দিতে আসলে ধারাল ছুরি পেটে ঢুকিয়ে দেন। আহতবস্থায় তাকে উদ্ধার করে কুষ্টিয়া মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

গাংনী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. ওবাইদুর রহমান জানান, আকরামুল হোসেনের চায়ের দোকান রয়েছে। মাদকাসক্ত হওয়ার কারণে মাঝে মধ্যে দোকান বন্ধ রেখে মাদক সেবন করতেন তিনি। এ কারণে স্ত্রী ও সন্তানদের সঙ্গে তার প্রায় সময় ঝগড়া-বিবাদ লেগেই থাকত। বাধ্য হয়ে চার মাস আগে আকরামুল হোসেনের স্ত্রী বাবার বাড়িতে চলে যান।

ওসি আরও জানান, নিহত মালা খাতুনের মরদেহ কুষ্টিয়া মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ময়নাতদন্ত শেষে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করবে। আকরামুল হোসেন পলাতক রয়েছেন। তাকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

5 × 3 =

Translate »