লিভারপুল ও রিয়ালের দাপুটে জয়

মূল ডিফেন্ডার ভার্জিল ফন ডাইক নেই। নেই তাঁর বিকল্প হিসেবে খেলা দলের আরও দুই তারকা ফাবিনিও ও জল মাতিপ। জো গোমেজের ফর্মও ভরসা জাগায় না। দলের মূল স্ট্রাইকার রবার্তো ফিরমিনোরও ফর্ম নেই। সব মিলিয়ে আনকোরা ডিফেন্ডার রিস উইলিয়ামসকে মূল একাদশে খেলানোর পরিকল্পনা নিয়ে ইতালির বের্গামোতে আতালান্তার বিপক্ষে খেলতে গিয়েছিল লিভারপুল, আর ফিরমিনোর জায়গায় নামানো হয়েছিল দলে নতুন আসা পর্তুগিজ উইঙ্গার দিওগো জোতাকে। অবিশ্বাস্যভাবে এই দুর্বল দলই আতালান্তার মতো চমক–জাগানিয়া দলকে হারিয়ে বসল ৫-০ গোলে। রিস উইলিয়ামসরা দলকে গোল খেতে দেননি, ওদিকে জোতা করেছেন হ্যাটট্রিক!

 

####################################################################

 

যে দুটি দল গ্রুপের সবচেয়ে শক্তিশালী, দুই ম্যাচ শেষে তারাই কিনা গ্রুপের তলানিতে! চ্যাম্পিয়নস লিগটা এবার রিয়াল মাদ্রিদ আর ইন্টার মিলানের জন্য মোটেও সুখবর নিয়ে আসেনি।

জিনেদিন জিদানের রিয়াল মাদ্রিদ আগের দুই ম্যাচ থেকে পেয়েছে এক পয়েন্ট—এক ম্যাচ হেরেছে, আরেকটি ড্র। আর আন্তোনিও কন্তের ইন্টার মিলান দুই ম্যাচেই করে ড্র! হার তো নয়ই, ড্রও দুই দলের কারও জন্যই ভালো ফল হতো না। ম্যাচে দুই দলেরই জেতার সুযোগ থাকলে জিদান-কন্তে দুজনই নিশ্চিত তাতে রাজি হয়ে যেতেন। কিন্তু তা তো আর হওয়ার নয়, রিয়ালের ‘আপৎকালীন’ হোম ভেন্যু স্তাদিও আলফ্রেদো দি স্তেফানোতে কাল স্মিত হাসিটা রইল জিদানের মুখেই।

দুই গোলে পিছিয়ে পড়া ইন্টার দ্বিতীয়ার্ধে দারুণ প্রত্যাবর্তনের গল্প লেখার আভাস দিয়েছিল, কিন্তু শেষ পর্যন্ত দারুণ জমে ওঠা ম্যাচটা ৩-২ গোলে জিতেছে রিয়াল। ম্যাচে রিয়াল অধিনায়ক সের্হিও রামোস মাদ্রিদের কুলীন জার্সিতে ১০০ গোলের মাইলফলক ছুঁয়েছেন। তবে রিয়াল ম্যাচটা জিতেছে শেষ পর্যন্ত দুই তরুণ ব্রাজিলিয়ানের ঝলকে। ৮০ মিনিটে ভিনিসিয়ুস জুনিয়রের পাস থেকে রদ্রিগোর গোলটিই শেষ পর্যন্ত হয়ে থেকেছে রিয়ালের জয়সূচক।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *