কেউ ষড়যন্ত্র করে আ’লীগকে ক্ষমতা থেকে সরাতে পারবে না: প্রধানমন্ত্রী

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, জনসমর্থন না থাকলে ক্ষমতায় টিকে থাকা যায় না। কেউ চাইলেই আওয়ামী লীগকে ষড়যন্ত্র করে ক্ষমতা থেকে সরিয়ে দিতে পারবে না। তিনি বলেন, ‘যখন আমরা ২০০৮ এর পর থেকে সরকারে এসেছি অনেকভাবে ক্ষমতা থেকে উৎখাতের চেষ্টা করা হয়েছে। বিডিআরের ঘটনা ঘটানো হলো, হেফাজতের ঘটনাসহ নানা ধরনের ঘটনা, বহু রকমের কারসাজির চেষ্টা করা হয়েছে।’ মঙ্গলবার (৩ নভেম্বর) বিকেলে জেল হত্যা দিবস উপলক্ষে আওয়ামী লীগ আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধানমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, ‘ষড়যন্ত্র করে খুন করে ফেলা যায়, হত্যা করে ফেলা যায়; কিন্তু জনসমর্থন না থাকলে ক্ষমতায় গিয়ে কেউ ক্ষমতায় টিকে থাকতে পারে না, মানুষের কল্যাণও করতে পারে না- এ হচ্ছে বাস্তবতা।’

শেখ হাসিনা বলেন, ‘আওয়ামী লীগ টিকে আছে কারণ এর তৃণমূলের নেতাকর্মী অর্থাৎ এর শিকড়ের শক্তি অনেক গভীরে। কাজেই, সেটা যদি কারও চক্ষুশূল হয় বা সে কারণে কারও মনে ব্যথা হয় তাহলে আমাদের কিছু করার নেই।’

তিনি বলেন, ‘আমরা জনগণের সমর্থনটা পাই কারণ আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় এলে জনগণের স্বার্থে, জনকল্যাণে এবং জনগণের মঙ্গলে কাজ করে। আর এটা জনগণ খুব ভালোভাবে উপলব্ধি করে এবং এর শুভফলটা জনগণই পায়।’

এ সময় জাতির পিতা, জাতীয় চার নেতাসহ বিভিন্ন সময় আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীদের হত্যার কথা তুলে ধরে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘এত হত্যাকাণ্ড চালিয়েও তৃণমূলে যার শিকড় একেবারে গ্রথিত সেই সংগঠনের ক্ষতি তারা করতে পারেনি। আওয়ামী লীগ টিকে আছে কারণ এর তৃণমূলের নেতাকর্মী, অর্থাৎ এর শিকড়ের শক্তি অনেক বেশি।’

প্রধানমন্ত্রী গণভবনের থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউয়ে পার্টি কার্যালয়ে মূল অনুষ্ঠানে ভার্চুয়ালি অংশগ্রহণ করেন। এতে আরও বক্তৃতা করেন দলের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। দলের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ড. আবদুস সোবহান গোলাপ অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

nine − seven =

Translate »