ইলিশ শিকারের পদ্মায় ৫১ জেলেকে আটক

নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে ইলিশ শিকারের দায়ে শিবচরের পদ্মা নদী থেকে ৫১ জেলেকে আটক করেছে পুলিশ। এদের মধ্যে ৩৫ জনকে মঙ্গলবার (৩ নভেম্বর) সারাদিনে অভিযান চালিয়ে আটক করা হয়।

এবং ১৬ জনকে গত রাতে আটক করা হয়।

 

মঙ্গলবার আটক ৩৫ জনের মধ্যে ৩১ জনকে বিভিন্ন মেয়াদে কারাদণ্ড ও ৩ জনকে ১৫ হাজার টাকা জরিমানা করেন ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. আল মামুন। এদের মধ্যে একজন অপ্রাপ্তবয়স্ক হওয়ায় মুচলেকা নিয়ে ছেড়ে দেওয়া হয়।

এছাড়া মঙ্গলবার রাতের অভিযানে আটক ১৬ জনকে সাজা দেওয়ার কার্যক্রম প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

বুধবার (৪ নভেম্বর) সকালে জেলা মৎস্য অফিস সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

মাদারীপুর জেলা মৎস্য অফিস জানায়, মৌসুমের শুরু থেকেই ইলিশ শিকার বন্ধে মাদারীপুরের পদ্মা নদীতে অভিযান পরিচালিত হয়ে আসছে।

২৪ ঘণ্টা একাধিক টিম এ অভিযান পরিচালনা করছে। প্রশাসনের তৎপরতায় চলতি মৌসুমে পদ্মায় জেলেদের উৎপাত অপেক্ষাকৃত কম ছিল। যারা নিষেধ অমান্য করে মাছ শিকার করছে তাদের আটক করে সাজা দেওয়া হচ্ছে। মাছ ধরার কাজে ব্যবহৃত জাল পুড়িয়ে ধ্বংস করা হচ্ছে। ইলিশ ধরা নিষিদ্ধের সময়সীমার একেবারে শেষ দিকে এসেও অভিযান অব্যাহত আছে। গত সোমবার মধ্যরাত থেকে মঙ্গলবার দিবাগত ভোর রাত পর্যন্ত পদ্মায় অভিযান চালিয়ে মোট ৫১ জন জেলেকে আটক করা হয়।

 

জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. আল মামুন এ অভিযানের নেতৃত্ব দেন। অভিযানে অন্যদের মধ্যে ছিলেন জেলা মৎস্য কর্মকর্তা রিপন কান্তি ঘোষ, উপজেলা সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা এটিএম সামসুজ্জামান, শিবচর থানা ও নৌ পুলিশের একাধিক সদস্য।

জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. আল মামুন জানান, পদ্মা নদীতে নিয়মিত অভিযান চলছে। আটক জেলেদের বিভিন্ন মেয়াদে কারাদণ্ড ও জরিমানা করা হচ্ছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *