জনসমুদ্রে পরিণত হয়েছে হেফাজতের সমাবেশ

ফ্রান্সে মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সা)-এর ব্যঙ্গচিত্র প্রদর্শনের প্রতিবাদে ঢাকায় সমাবেশ করছে হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশ। পূর্বঘোষিত কর্মসূচি অনুযায়ী, সোমবার (২ নভেম্বর) বেলা ১১টা থেকে তারা বায়তুল মোকাররমের উত্তর গেটে অবস্থান নেওয়ায় পল্টন, গুলিস্তান, প্রেসক্লাব হয়ে যানবাহন চলাচল বন্ধ হয়ে গেছে।

এর আগে ভোর ৬টা থেকে দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে হেফাজতের কর্মীরা এখানে জড়ো হতে শুরু করে।

বেলা ১১টায় সমাবেশ জনসমুদ্রে পরিণত হয়। বিজয়নগর, প্রেসক্লাব থেকে পল্টন, গুলিস্তান সড়ক বন্ধ করে দেয়া হয়। আশপাশের এলাকায় প্রচুর সংখ্যক পুলিশের উপস্থিতি দেখা যায়।

বিক্ষোভ সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত আছেন হেফাজতের মহাসচিব জুনায়েদ বাবুনগরী। সভাপতিত্ব করছেন ঢাকা মহানগর হেফাজতে আমির নূর হোসেন কাসেমী।

সমাবেশে হেফাজতের নেতারা প্রধানমন্ত্রীর পক্ষ থেকে ফ্রান্সের বক্তব্যের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রীয়ভাবে নিন্দা ও ঘৃণা প্রস্তাব আনার দাবি জানিয়েছেন। এ ছাড়া ফ্রান্সের পণ্য বর্জন এবং বাংলাদেশ থেকে ফরাসি দূতাবাস বন্ধ করে দেয়ার দাবি জানানো হয়।

স্কুলের শিক্ষার্থীদের সঙ্গে বাক-স্বাধীনতার ব্যাপারে আলোচনা করতে গিয়ে ফ্রান্সের রাজধানী প্যারিসের উপকণ্ঠের একটি মাধ্যমিক স্কুলের শিক্ষক স্যামুয়েল প্যাটি হযরত মুহাম্মদ (সা.)-এর কার্টুন প্রদর্শন করেন। এ ঘটনার পর গত ১৬ অক্টোবর ১৮ বছর বয়সী এক চেচেন কিশোর স্যামুয়েলকে শিরশ্ছেদ করে হত্যা করেন।

স্যামুয়েল হত্যাকাণ্ডের পর ফরাসি প্রেসিডেন্ট এমানুয়েল ম্যাক্রোঁ তার ইসলামবিরোধী কর্মকাণ্ড এবং হযরত মুহাম্মদ (সা.)-এর কার্টুন প্রদর্শনী অব্যাহত রাখার ঘোষণা দেন। এ নিয়ে মুসলিম বিশ্বের বিভিন্ন দেশের সঙ্গে ফ্রান্সের সম্পর্কের টানাপড়েন তৈরি হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

fifteen − 6 =

Translate »