‘আমার করোনা হলে মমতাকে জড়িয়ে ধরব’: বিজেপি নেতার বিরুদ্ধে মামলা

‘আমি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হলে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জিকে জড়িয়ে ধরব’-এই মন্তব্য করে বিতর্কের কেন্দ্রে পশ্চিমবঙ্গের বিজেপি নেতা অনুপম হাজরা। ইতোমধ্যেই তার বিরুদ্ধে মামলাও দায়ের করা হয়েছে। সোমবার সকালে দার্জিলিং জেলার শিলিগুড়ি থানায় এই মামলা করে রাজ্যের ক্ষমতাসীন দল ‘তৃণমূল কংগ্রেস রিফিউজি সেল’।

গত শনিবারই বিজেপি কেন্দ্রীয় সম্পাদক হিসেবে নিয়োগ দেওয়া হয় অনুপম হাজরাকে। পরদিন রবিবার দক্ষিণ চব্বিশ পরগনা জেলার বারুইপুরে এক দলীয় কর্মীসভায় যোগ দিয়ে এই বেফাঁস মন্তব্য করে বিতর্কে জড়িয়ে পড়েন অনুপম। ওইদিন বারুইপুরের কর্মীসভায় প্রচুর সংখ্যায় বিজেপি কর্মী-সমর্থকরা হাজির হন। কিন্তু করোনা স্বাস্থ্যবিধি শিকেয় তুলে কাউকে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতেও দেখা যায়নি, আবার অনেকেরই মুখেই ছিল না মাস্ক।
স্বভাবতই এ নিয়ে সাংবাদিকেরা প্রশ্ন করলে বিজেপি নেতা অনুপম জানান ‘আমাদের কর্মীরা করোনার থেকেও বড় শত্রুর সঙ্গে লড়াই করছেন। তারা লড়াই করছেন মমতা ব্যানার্জির বিরুদ্ধে। যেহেতু তারা (বিজেপি কর্মীরা) এখনও করোনায় আক্রান্ত হননি, তাই তারা আর কিছুকেই ভয় পান না।’ এ সময় তিনি আরও বলেন ‘আমি ঠিক করেছি যে, আমি যদি করোনায় সংক্রমিত হই, তবে মমতা ব্যানার্জিকে আলিঙ্গন করব। এই রোগে আক্রান্তদের সঙ্গে মমতা খুব খারাপ ব্যবহার করছেন। লাশগুলো কেরোসিন তেল ঢেলে পুড়িয়ে দেওয়া হচ্ছে। কিন্তু আমরা মরা কুকুর বা বিড়ালের সঙ্গেও এমনটা করি না।’

বিজেপি নেতার এই মন্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতে তৃণমূল সাংসদ সৌগত রায় বলেন ‘একমাত্র বিজেপি নেতারাই এই ধরনের শব্দ ও কথা বলতে পারেন। আর এটাই বিজেপির সংস্কৃতি। আমরা এই ধরনের মন্তব্যের তীব্র নিন্দা জানাই।’

অনুপম হাজরার এই মন্তব্যের প্রতিবাদ জানিয়ে শিলিগুড়িতে র‌্যালিরও আয়োজন করে তৃণমূল কংগ্রেস। সোমবার দলের এক শীর্ষস্থানীয় নেতা জানান, ‘আমরা অনুপম হাজরার বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দায়ের করেছি। তার বিরুদ্ধে অবিলম্বে আইনি পদক্ষেপ নিতে পুলিশকে জানিয়েছি।’

উল্লেখ্য, ২০১৯ সালের লোকসভা নির্বাচনের ঠিক আগে তৃণমূল কংগ্রেস ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দেন অনুপম হাজরা। সেই ভোটে যাদবপুর লোকসভা কেন্দ্র থেকে তৃণমূলের প্রার্থী অভিনেত্রী মিমি চক্রবর্তীর কাছে হারতে হয় অনুপমকে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *