গোলশূন্য ড্র রোনালদো-এমবাপেদের

সবশেষ রাশিয়া বিশ্বকাপের শিরোপা ঘরে তুলেছে ফ্রান্স। আর ২০১৮ সালের ইউরো চ্যাম্পিয়ন বিশ্বের অন্যতম সেরা ফুটবলার ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর দেশ পর্তুগাল।

উয়েফা নেশনস লিগে রবিবার রাতে মুখোমুখি হয় এই দুই দল। তবে কেউ জয় পায়নি।

বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন ফ্রান্স ঘরের মাঠে পর্তুগালকে পেয়েও হারাতে পারেনি।

 

অন্যদিকে পর্তুগালও পায়নি জালের নাগাল। গোলশূন্য ড্রয়ে পয়েন্ট ভাগাভাগি করে মাঠ ছেড়েছে রোনালদো-এমবাপেরা।

প্রথমার্ধে ফ্রান্সের আঁতোয়ান গ্রিজমান গোলের সুযোগ পেয়েছিলেন। কিন্তু তার নেওয়া শট পর্তুগালের গোলরক্ষক রুই প্যাট্রিসিওকে ফাঁকি দিতে পারেনি। রোনালদোও অবশ্য প্রথমার্ধে প্রায় গোল দিয়ে ফেলেছিলেন। কিন্তু তার নেওয়া শট ফ্রান্সের রক্ষণভাগের খেলোয়াড় লুকাস হার্নান্দেজ লক্ষ্যভ্রষ্ট করেন।

যোগ করা সময়ে রোনালদো গোলমুখে শট নিয়েছিলেন।

কিন্তু সেটা ধরে ফেলেন ফ্রান্সের গোলরক্ষক হুগো লরিস।

 

পর্তুগালের রক্ষণভাগের খেলোয়াড় পেপে ফ্রি কিক থেকে আসা বলে মাথা লাগিয়ে অবশ্য জালে জড়িয়ে দিয়েছিলেন। কিন্তু গোলটি অফসাইডের কারণে বাতিল হয়।

শেষ পর্যন্ত কোনও দলই জালের নাগাল পায়নি। তাতে জয়ও ধরা দেয়নি বিশ্ব ও ইউরো চ্যাম্পিয়নদের হাতে।

পয়েন্ট ভাগাভাগি করেই সন্তুষ্ট থাকতে হয় তাদেরকে।

 

৩ ম্যাচ থেকে ৭ পয়েন্ট সংগ্রহ করে পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে আছে পর্তুগাল। সমান ম্যাচ থেকে সমান পয়েন্ট নিয়ে গোল ব্যবধানে পিছিয়ে থেকে দ্বিতীয় স্থানে আছে ফ্রান্স। ৩ ম্যাচ থেকে ৩ পয়েন্ট সংগ্রহ করে ক্রোয়েশিয়া আছে তৃতীয় স্থানে। চতুর্থ স্থানে থাকা সুইডেন এখন পর্যন্ত কোনও পয়েন্ট সংগ্রহ করতে পারেনি।

করোনার কারণে স্টাডে ডি ফ্রান্সের গ্যালারিতে বসে পর্তুগাল-ফ্রান্সের ম্যাচ দেখার সুযোগ পেয়েছেন মাত্র ১ হাজার দর্শক। যদিও এই স্টেডিয়ামের ধারণক্ষমতা ৮০  হাজার।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *