জেলখানায় আসামীদের ইয়োগা করাতেন রিয়া

সুশান্ত ইস্যুতে মাদক মামলায় গ্রেপ্তার হয়ে প্রায় ১ মাস হাজতবাস ছিলেন সুশান্তের প্রেমিকা ও অভিনেত্রী রিয়া চক্রবর্তী। ২৮ দিন কারাভোগের পর বুধবার জামিন পেয়েছেন তিনি। একইদিন বিকেলে মুম্বাইয়ের বাইকুল্লা জেল থেকে বাসায় ফিরেছেন তিনি।

দীর্ঘদিন পর রিয়ার জামিনে স্বস্তি প্রকাশ করেছে তার পরিবার। পাশাপাশি রিয়া এতদিন কারাগারে কীভাবে সময় কাটিয়েছে তা জানিয়েছেন তার আইনজীবী সতীশ মাণেশিন্ডে। বন্দি থাকা অবস্থায় তিনি তাকে কারাগারে দেখতে গিয়েছিলেন।

আইনজীবী সতীশ মাণেশিন্ডে জানিয়েছেন, রিয়া কারাগারে নিয়মিত ইয়োগা করতেন এবং কারাবন্দিদের ইয়োগা ক্লাস করাতেন। মহামারির কারণে রিয়া কারাগারে নিজের বাড়ির খাবার খেতেন না। কারাগারের খাবারই খেয়েছেন। এছাড়া বন্দিদের সঙ্গে একেবারে সাধারণ একজন মানুষের মতই মিশেছেন।

তিনি আরও জানান, কারাগারে রিয়াকে দেখতে গিয়ে তিনি বেশ অবাক হয়েছেন। তাকে খুব স্বাভাবিক দেখেছেন তিনি। এই অভিনেত্রী নিজের খেয়াল রেখেছেন। নিজে ইয়োগা করেছেন পাশাপাশি কারাবন্দিদেরও ক্লাস করিয়েছেন।

সেনা বাহিনীর পরিবেশে বেড়ে ওঠার কারণে যে কোনও কঠিন পরিস্থিতির সঙ্গে লড়াই করার মানসিকতা রিয়ার রয়েছেন বলেও জানান এই আইনজীবী।

রিয়ার জন্যে আদালতের নির্দেশ, মুম্বাই ছাড়তে গেলেও তদন্তকারীদের অনুমতি নিতে হবে। কোনও ভাবেই বিদেশ যাওয়া চলবে না তার। দশদিন পর আবারও তাকে হাজিরা দিতে হবে থানায়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *