ছোট পুঁজি নিয়েও বড় জয় কলকাতার

চেন্নাই সুপার কিংসের সামনে লক্ষ্যটা খুব বড় ছিল না। মাত্র ১৬৮ রানের। এবারের আইপিএলে যেভাবে রান উঠছে, তাতে এই ১৬৮ রান খুব বেশি বড় নয়। কিন্তু এই রানটাও করতে পারলো না মহেন্দ্র সিং ধোনির দল। থেমে গেলো ১৫৭ রানে। ফলে চেন্নাইকে ১০ রানে হারিয়ে পয়েন্ট টেবিলে তিন নম্বরে উঠে আসলো শাহরুখ খানের দল কলকাতা নাইট রাইডার্স।

কলকাতার যেমন রাহুল ত্রিপাতি ছাড়া আর কেউ দাঁড়াতেই পারেনি চেন্নাইয়ের বোলারদের সামনে, তেমনি কেকেআরের বোলারদের সামনে এক শেন ওয়াটনসন ছাড়া দাঁড়াতেই পারেনি চেন্নাইয়ের কেউ।

শেন ওয়াটসনই কেবল লড়াই করলেন। ৪০ বলে তিনি খেললেন ৫০ রানের ইনিংস। ৬টি বাউন্ডারির সঙ্গে ছক্কা মারলেন ১টি। এছাড়া আম্বাতি রাইডু ২৭ বলে খেলেন ৩০ রানের ইনিংস। রবীন্দ্র জাদেজা করেন ৮ বলে ২১ রান। ফ্যাফ ডু প্লেসি করেন ১০ বলে ১৭ রান। ১২ বল খেলে ১১ রান করেন মহেন্দ্র সিং ধোনি।

উইকেট হাতে ছিল ৫টি। তবুও ১০ রানে হারতে হলো ধোনির দলকে। ১৫৭ রানে থেমে যেতে হলো চেন্নাই সুপার কিংসকে। মূলতঃ কেকেআরের বোলারদের সাঁড়াসি বোলিংয়ের মুখেই থেমে যেতে হলো তাদেরকে।

প্যাট কামিন্স আজ উইকেট নিতে পারেননি। তবে ৪ ওভারে দিয়েছেন কেবল ২৫ রান। শিভাম মাভি ৩ ওভারে ৩২ রান দিয়ে নেন ১টি উইকেট। বরুন চক্রবর্তী ৪ ওভারে ২৮ রান দিয়ে নেন ১ উইকেট। কমলেশ নাগরকোটি করেন ৩ ওভার। রান দেন ২১টি। উইকেট নেন ১টি। সুনিল নারিন ৪ ওভার বল করে ৩১ রান দিয়ে নেন ১ উইকেট এবং আন্দ্রে রাসেল করেন ২ ওভার। ১৮ রান দিয়ে নেন ১ উইকেট।

এর আগে টস জিতে ব্যাট করতে নেমে রাহুল ত্রিপাতির ৫১ বলে ৮১ রানের ওপর দাঁড়িয়ে ১৬৭ রান করে কলকাতা নাইট রাইডার্স। যদিও তারা অলআউট হয়ে গিয়েছিল। ৮টি বাউন্ডারির সঙ্গে ৩টি ছক্কার মার মারেন ত্রিপাতি।

Leave a Reply

Your email address will not be published.