রেমডেসিভির দেওয়া হচ্ছে ট্রাম্পকে

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের চিকিৎসায় ওষুধ হিসেবে রেমডেসিভির দেওয়া হচ্ছে। করোনাভাইরাসে সংক্রমিত হয়ে  ট্রাম্প ওয়াল্টার রিড ন্যাশনাল মিলিটারি মেডিকেল সেন্টারে চিকিৎসা নিচ্ছেন। স্থানীয় সময় গতকাল শুক্রবার রাতে তাঁর চিকিৎসক এই ওষুধ দেওয়ার কথা জানান।

হোয়াইট হাউসের চিকিৎসা কর্মকর্তা সিন কনলি বলেন, প্রেসিডেন্টের চিকিৎসায় রেমডিসিভির ব্যবহার করা হচ্ছে। তিনি খুব ভালো আছেন। তাঁকে অক্সিজেন দেওয়ার প্রয়োজন নেই। তাঁকে অ্যান্টিবডির বিশেষ ককটেলও দেওয়া হয়েছে।

হোয়াইট হাউসের পক্ষ থেকে বলা হচ্ছে, কয়েকদিন হাসপাতালে কাটাতে হবে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পকে। তাঁর চিকিৎসায় পরীক্ষামূলক ওষুধ ব্যবহার করছেন চিকিৎসকেরা।

সিন কনলি আরও বলেন, ট্রাম্পকে রেজনারনের অ্যান্টিবডি ককটেলের একটি ডোজ দেওয়া হয়েছে। এই চিকিৎসাপদ্ধতি ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালের মধ্যে রয়েছে। বিশেষজ্ঞদের একটি দল ট্রাম্পের চিকিৎসা করছেন।

ট্রাম্পকে হাসপাতালে থাকতে হতে পারে কয়েক দিন

সিএনএনের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, হোয়াইট হাউসের প্রেস সচিব কেলেইজ ম্যাকেনি এক বিবৃতিতে জানিয়েছেন, চিকিৎসকেরা আগামী কয়েকদিন ওয়াল্টার রিড থেকে ট্রাম্পকে দায়িত্বপালন করার পরামর্শ দিয়েছেন। হাসপাতালের বিশেষ একটি কক্ষে ট্রাম্প থাকবেন।

হোয়াইট হাউসের চিকিৎসা কর্মকর্তা সিন কনলি বলেন, করোনায় শনাক্ত ট্রাম্পের মৃদু উপসর্গ রয়েছে। তিনি কিছুটা ক্লান্ত। তবে সুস্থসবল আছেন।

ডোনাল্ড ট্রাম্প হাসপাতাল থেকে এক টুইট করে তাঁর অবস্থার হালনাগাদ তথ্য দিয়েছেন। তিনি বলেছেন, ‘আমার মনে হচ্ছে, সবকিছু ভালোমতো চলছে।’

যুক্তরাষ্ট্রের স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞ সঞ্জয় গুপ্ত সিএনএনকে বলেন, পরীক্ষামূলক অ্যান্টিবডি থেরাপি ও রেমডিসিভির ব্যবহার করায় ট্রাম্পকে নিয়ে কিছুটা উদ্বেগ রয়েছে।

গত মে মাসে যুক্তরাষ্ট্রের ফুড অ্যান্ড ড্রাগ অ্যাডমিনিস্ট্রেশন (এফডিএ) দেশটিতে জরুরি ব্যবহারের জন্য রেমডেসিভিরকে অনুমোদন পায়। এ ওষুধটি দ্রুত কোভিড–১৯ রোগীদের সুস্থ হতে সাহায্য করে বলে প্রমাণ পাওয়া যায়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *