ট্রাম্পের জন্য কিমের প্রার্থনা

করোনা আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে আছেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। অসুস্থ তার স্ত্রী মেলানিয়াও। মার্কিন প্রেসিডেন্টের করোনা আক্রান্তের খবরে দুঃখ প্রকাশ করেছেন উত্তর কোরিয়ার সর্বোচ্চ নেতা কিম জন উন। মার্কিন প্রেসিডেন্ট ও ফার্স্ট লেডির দ্রুত আরোগ্য কামনা করেছেন তিনি।

কোরিয়ান সেন্ট্রাল নিউজ এজেন্সি কেসিএনএর বরাত দিয়ে ট্রাম্পের প্রতি কিমের সমবেদনা নিয়ে সংবাদ প্রকাশ করেছে আলজাজিরা।

কেসিএনএর খবরে বলা হয়েছে, কিম আন্তরিকভাবে আশা করেন; তারা দ্রুত সেরে উঠবে। তিনি আরও আশা করেন, তারা নিশ্চিতভাবে করোনাজয় করে আবার ফিরে আসবেন।

ঘনিষ্ঠ এক উপদেষ্টার করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার পর যুক্তরাষ্ট্রের স্থানীয় সময় বৃহস্পতিবার রাতে (বাংলাদেশ সময় শুক্রবার সকালে) ট্রাম্প নিজেই টুইট করে জানান, ছোঁয়াচে এই ভাইরাসে তিনি ও স্ত্রী মেলানিয়াও আক্রান্ত।

শুক্রবার (২ অক্টোবর) বিকেলে ট্রাম্পকে মেরিল্যান্ডের ‘ওলটার রিড ন্যাশনাল মিলিটারি মেডিকেল সেন্টারে’ ভর্তি করা হয়। চিকিৎসকরা তাকে রেমডিসিভির চিকিৎসা দিতে শুরু করেছেন।

হোয়াইট হাউসের চিকিৎসক শন কনলি এক লিখিত বিবৃতিতে জানান, আমি আনন্দের সঙ্গে জানাচ্ছি প্রেসিডেন্ট ভালো আছেন। তাকে অক্সিজেন দিতে হচ্ছে না। তবে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকদের পরামর্শে তাকে আমরা রেমডিসিভির থেরাপি দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। এরই মধ্যে প্রেসিডেন্টকে ওষুধের প্রথম ডোজ দেওয়া হয়েছে। তিনি খুব শান্তভাবে বিশ্রাম নিচ্ছেন।

বিবৃতিতে ডা. কনলি বলেছিলেন, সতর্কতামূলক ব্যবস্থা হিসেবে হোয়াইট হাউসে থাকতে ট্রাম্পকে রেজেনেরন ফার্মাসিউটিক্যালের পরিক্লোনল অ্যান্ডিবডি ককটেল (REGN-Cov2) দেওয়া হয়। ওই ওষুধটি শরীরে ভাইরাসের বিস্তার হ্রাস করে দ্রুত সুস্থ হয়ে উঠতে সহায়তা করে। এ ছাড়া সুস্থ রাখতে ট্রাম্পকে জিংক, ভিটামিন ডি, ফেমটিডিন, মেলাটনিন এবং অ্যাসপিরিন দেওয়া হয়েছে বলেও জানান কনলি। শুক্রবার বিকেল থেকে তিনি কিছুটা দুর্বলতা অনুভব করলেও ‍মানসিকভাবে চাঙা আছেন।

বয়স এবং ওজনের কারণে ট্রাম্প মারাত্মক ঝুঁকিতে আছেন। ৭৪ বছর বয়সের ট্রাম্পের বডি ম্যাস ইনডেক্স (বিএমআই) ৩০-এর ওপরে, যাকে বলা যায় ওজনাধিক্য বা স্থূলতা। ফার্স্ট লেডি মেলানিয়ার বয়স ৫০ বছর। তার শরীরেও মৃদু উপসর্গ দেখা দিয়েছে বলে জানান ডা. কনলি। বলেন, ফার্স্ট লেডির অল্প কাশি এবং মাথাব্যথা হচ্ছে।

ট্রাম্প-মেলানিয়া দম্পতির একমাত্র ছেলে ব্যারন তাদের সঙ্গেই হোয়াইট হাউসে থাকে। ব্যারনের পরীক্ষার ফল ‘নেগিটিভ’ এসেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.