যে কারণে আইসোলেশনে রাখা হল ৫টি টিয়াকে

সব সময় নোংরা কথা। ফলে দর্শনার্থীদের সামনে আর রাখার উপায় নেই। আর এই অপরাধে চিড়িয়াখানার পাঁচ টিয়াকে ভাষা শিক্ষার জন্য ইংল্যান্ডে আইসোলেশনে রাখা হয়েছে। খবর বিবিসি ও দ্য গার্ডিয়ান’র।

প্রতিবেদনে বলা হয়, খারাপ কথা ভুলে ভালো কথা না শেখা পর্যন্ত টিয়াগুলোকে আইসোলেশনে থাকতে হবে। এতে পাঁচ টিয়া পৃথক থেকে ‘কু-কথা’ ভুলে ‘ভদ্র’ ও ‘সভ্য’ হবে!

বিবিসির প্রতিবেদন অনুযায়ী, যুক্তরাজ্যের লিঙ্কনশায়ার ওয়াইল্ডলাইফ পার্ক কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, নোংরা ভাষার কারণে পাঁচটি আফ্রিকান টিয়াকে আপাতত আর চিড়িয়াখানায় আসা দর্শনার্থীদের সামনে রাখা হবে না। পাঁচ টিয়াকে আলাদা পাঁচজনের কাছে পাঠানো হয়েছে বলেও নিশ্চিত করেছে চিড়িয়াখানা কর্তৃপক্ষ।
সেখান থেকে নিজেদের সংশোধন করে ফেরার পর ফের তাদের দর্শনার্থীদের মুখোমুখি হতে দেয়া হবে। মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনএন জানিয়েছে, চিড়িয়াখানা থেকে অন্যত্র সরানো এই পাঁচ টিয়ার নাম এরিক, জেড, এলসি, টাইসন ও বিল্লি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *