হারলে শান্তিপূর্ণভাবে ক্ষমতা হস্তান্তরের প্রতিশ্রুতি রিপাবলিকান দলের

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে হারলে শান্তিপূর্ণভাবে ক্ষমতা হস্তান্তর করার প্রতিশ্রুতি দিতে প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প যে অস্বীকৃতি জানিয়েছেন, তা প্রত্যাখ্যান করেছেন তাঁর দল ক্ষমতাসীন রিপাবলিকান পার্টির শীর্ষ নেতারা। সেই সঙ্গে মার্কিন ভোটারদের প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন, নভেম্বরের নির্বাচনের ফলাফল মেনে নেবেন তাঁরা।

মার্কিন কংগ্রেসের উচ্চকক্ষ সিনেটের সংখ্যাগরিষ্ঠ নেতা মিচ ম্যাককনেল ও অন্য শীর্ষ রিপাবলিকান নেতারা গত বৃহস্পতিবার এই প্রতিশ্রুতি দেন। এর আগের দিন বুধবার হোয়াইট হাউসে সংবাদ সম্মেলনে একজন সাংবাদিকের প্রশ্নের জবাবে ট্রাম্প শান্তিপূর্ণভাবে ক্ষমতা হস্তান্তরের প্রতিশ্রুতি দিতে অস্বীকৃতির কথা জানিয়েছিলেন। ট্রাম্প বলেছিলেন, তাঁর প্রতিদ্বন্দ্বী ডেমোক্র্যাট প্রার্থী জো বাইডেনের সঙ্গে নির্বাচনী লড়াই সুপ্রিম কোর্টেই মীমাংসিত হবে বলে ধারণা করেন তিনি।

সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প বলেন, ৩ নভেম্বর একটি ‘ভালো’ নির্বাচন হবে কি না, তা তিনি জানেন না। ট্রাম্প আরও বলেন, মহামারির কারণে ডাকযোগে বর্ধিত ভোট না হলে ক্ষমতা হস্তান্তরের কোনো দরকারই হতো না বলে বিশ্বাস করেন তিনি। তিনি মনে করেন, ডাকযোগের ভোটে জালিয়াতি হলেই শুধু তিনি হারতে পারেন।

প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ডাকযোগে ভোট গ্রহণের বিষয়ে প্রথম থেকেই দ্বিমত পোষণ করে আসছেন ট্রাম্প। ডাকযোগে ভোটে কারচুপি হতে পারে বলে তাঁর আশঙ্কার কথা একাধিকবার বলেছেন তিনি। এসব কথায় খেপে গিয়ে এরই মধ্যে কংগ্রেসের কয়েকজন রিপাবলিকান সদস্য তাঁর কাছ থেকে দূরত্ব বজায় রাখতে শুরু করেছেন।

চার বছর ধরে ক্ষমতায় থাকাকালে বিভিন্ন সময় নানা বিতর্কিত ও উত্তেজক কথা বলেছেন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প। এসব কথার সমালোচনা উঠেছে তাঁর দলের ভেতর থেকেই। কেউ কেউ আবার রাজনৈতিক প্রতিহিংসার শিকার হওয়ার আশঙ্কায় তা এড়িয়ে গেছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *