প্রীতিলতার চরিত্রে তিশা

শিশুশিল্পী হিসিবে নতুন কুঁড়িতে প্রশংসা কুড়িয়েছেন অভিনেত্রী নুসরাত ইমরোজ তিশা। বড় হয়ে ছোট পর্দা ও বড় পর্দা—দুই জায়গাতেই অভিনয়ের দ্যুতি ছড়িয়েছেন। কিন্তু দীর্ঘ অভিনয়জীবনে এমন গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে অভিনয় করা হয়নি। অবশেষে তেমনি একটি চরিত্র ধরা দিল তাঁর কাছে। বীরকন্যা প্রীতিলতা ওয়াদ্দেদারের চরিত্রে এবার অভিনয় করবেন নুসরাত ইমরোজ তিশা।

কথাসাহিত্যিক সেলিনা হোসেনের লেখা প্রীতিলতা ওয়াদ্দেদারের জীবনীনির্ভর উপন্যাস ‘ভালোবাসা প্রীতিলতা’ অবলম্বনে নির্মিত হচ্ছে পূর্ণদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র। সেখানেই নামভূমিকায় অভিনয় করবেন তিশা। বিপ্লবী রামকৃষ্ণ বিশ্বাস চরিত্রে থাকছেন মনোজ প্রামাণিক। সরকারি অনুদানের চলচ্চিত্রটি প্রযোজনা ও পরিচালনা করছেন প্রদীপ ঘোষ।

বৃহস্পতিবার বীরকন্যা প্রীতিলতা ওয়াদ্দেদারের ৮৯তম আত্মাহুতি দিবস উপলক্ষে চলচ্চিত্রটির মহরত অনুষ্ঠিত হয়। সেখানেই পরিচালক প্রদীপ ঘোষ অভিনয়শিল্পীদের সঙ্গে পরিচয় করিয়ে দেন। তিনি জানান, দেড় মাস আগে প্রীতিলতা চরিত্রে অভিনয়ের প্রস্তাব পান তিনি। এমন একটি চরিত্রে অভিনয়ের প্রস্তাব পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই ‘হ্যাঁ’ বলতে খুব একটা সময় নেননি এই অভিনেত্রী। এরপর চিত্রনাট্য পড়তে সময় নেন পরিচালকের কাছ থেকে। চিত্রনাট্য পড়ে আরও বেশি মুগ্ধ হয়ে যান। তিশা বলেন, ‘কিছু কিছু চরিত্র থাকে, যেগুলো অভিনয়শিল্পীর জন্য ভীষণ আগ্রহের। এমন চরিত্রের প্রস্তাব পেলে যে কেউ চোখ বন্ধ করে “হ্যাঁ” বলে দেবেন, প্রীতিলতা তেমনি একটি চরিত্র। এ ধরনের চরিত্রে কাজের সুযোগ জীবনে একবারই আসে। এখন চেষ্টা করব, চরিত্রটি হয়ে উঠতে সব রকমের প্রস্তুতি নিতে।’

কথায় কথায় তিশা জানিয়ে রাখলেন, ছবিটিতে অভিনয়ের সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত করার পর থেকে ‘ভালোবাসা প্রীতিলতা’ উপন্যাসের লেখিকা কথাসাহিত্যিক সেলিনা হোসেনের সঙ্গে প্রায়ই অনলাইনে কথা বলছেন। তাঁর লেখায় যেভাবে প্রীতিলতাকে তিনি তুলে ধরেছেন, চলচ্চিত্রে সেটি হয়ে ওঠার খুঁটিনাটি বিষয় জানার চেষ্টা করছেন তিশা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *