এবার ড্রাগ চ্যাটে দীপিকার নাম!

কেঁচো খুঁড়তে কেউটে। ড্রাগ তদন্তে একের পর নাম উঠে আসছে। আগেই রিয়া চক্রবর্তী ও তাঁর ভাইকে গ্রেফতার করেছে নারকোটিকস ব্যুরো। এবার উঠে এল দীপিকা পাডুকোনের নাম।

রিয়ার হোয়াটসঅ্যাপ নিয়ে তদন্তে করতে গিয়ে গোয়েন্দারা দেখেন, সেখানে জয়া সাহা নামে এক মহিলার সঙ্গে চ্যাট করেছিল রিয়া। তাঁর সঙ্গে ড্রাগের বিষয়ে কথা বলতে দেখা গিয়েছিল রিয়াকে।

সেই জয়া সাহার সঙ্গে একটি হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপে এমন দু’জনকে থাকতে দেখা গিয়েছে, যাদের নাম ছিল ‘D’ ও ‘K’. এর মধ্যে ‘D’ অর্থাৎ দীপিকা বলে চিহ্নিত করা হয়েছে আর ‘K’ অর্থঅৎ করিশ্মা। করিশ্মা একটি ট্যালেন্ট ম্যানেজমেন্ট এজেন্সির কর্মী। তিনি দীপিকার ম্যানেজার বলেও জানা গিয়েছে। মঙ্গলবারই তাঁকে তলব করেছে নারকোটিকস ব্যুরো।

চলতি সপ্তাহেই দীপিকাকেও তলব করা হবে বলে জানা গিয়েছে।

ওই চ্যাটে দীপিকা এক বিশেষ ড্রাগ চাইছেন। আর তা নিয়েই রয়েছে কথোপকথন।

শুধু দীপিকাই নয়, আগেই সারা আলি খান ও শ্রদ্ধা কাপুরের নাম উঠে এসেছে ডরাগ-কাণ্ডের তদন্তে। দেখা গিয়েছে, পুনের কাছে একটি আইল্যান্ডে এরা পার্টি করতে গিয়েছিলেন সুশান্তের সঙ্গে।

জেরায় রিয়া চক্রবর্তীও জানিয়েছেন যে সারা আলি খান, রকুল প্রীত সিং ও সিমোন খামবাট্টা ড্রাগ নিতেন।

এদিকে রিয়ার মামলার তদন্ত করতে গিয়ে গোয়েন্দারা দেখেছে যে, এর সঙ্গে আন্তর্জাতিক স্তরের চক্রের যোগ আছে।

 

তিনি জানিয়েছেন, দুবাইয়ের পাচারকারীদের কিংবা জঙ্গি সংগঠনগুলির মাধ্যমে সিস্টেমেটিকভাবে ড্রাগ ঢুকছে ভারতে। রেভ পার্টির জন্য ড্রাগ আসছে বলেও জানান তিনি। তাঁর দাবি, মারিজুয়ানার দাম কেজি প্রতি ৮ লক্ষ টাকা।

আস্তানা আরও ব্যাখ্যা করেন, রিয়াদের মত স্টারদের রোল মডেল হিসেবে দেখা হয়। তাই তাদের এই পাচার চক্রে ঢোকালে সুবিধা হয় পাচারকারীদের।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *