হাটহাজারী মাদ্রাসা পরিচালনায় জ্যেষ্ঠ তিন শিক্ষক

হাটহাজারীর আল জামিয়াতুল আহলিয়া দারুল উলুম মুঈনুল ইসলাম মাদ্রাসা পরিচালনার জন্য তিন সদস্যবিশিষ্ট নতুন নেতৃত্ব ঘোষণা করা হয়েছে। মাদ্রাসাটির মহাপরিচালক শাহ আহমদ শফীর দাফনের পর  শনিবার রাতে মাদ্রাসাটির শূরা কমিটি এই সিদ্ধান্ত নেয়। এ দিকে জুনায়েদ বাবুনগরীকে মাদ্রাসাটির প্রধান শায়খুল হাদীস ও নাজিমে তালিমাতের (শিক্ষা পরিচালক) দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে।

মাদ্রাসা পরিচালনার দায়িত্ব পাওয়া তিন পরিচালক হলেন, শিক্ষক মুফতি আবদুস সালাম, মাওলানা শেখ আহমদ ও মাওলানা ইয়াহিয়া। গত ১৭ জুন জুনায়েদ বাবুনগরীকে সরিয়ে শেখ আহমদকে সহকারী পরিচালক নিয়োগ দেওয়া হয়েছিল। আর সহকারী শিক্ষা পরিচালকের পদে ছিলেন আহমদ শফীর ছোট ছেলে আনাস মাদানি। ছাত্রদের বিক্ষোভের মুখে গত বৃহস্পতিবার আনাস মাদানিকে অব্যাহতি দেওয়া হয়।

বৈঠক শেষে শূরা কমিটির সদস্য মাওলানা সালাউদ্দীন নানুপুরী আজ রাতে প্রথম আলোকে বলেন, আগামী শূরা কমিটি পর্যন্ত মাদ্রাসার তিনজন জ্যেষ্ঠ শিক্ষক মাদ্রাসা পরিচালনা করবেন। এ ছাড়া শিক্ষা পরিচালক করা হয়েছে জুনায়েদ বাবুনগরীকে। সহকারী শিক্ষা পরিচালক হিসেবে দায়িত্ব পালন করবেন মাওলানা শুয়াইব। প্রধান শায়খুল হাদীস করা হয়েছে জুনায়েদ বাবুনগরীকে।

মাদ্রাসার মহাপরিচালক নির্ধারণ করা হয়নি কেন—এমন প্রশ্নের জবাবে সালাউদ্দিন নানুপুরী প্রথম আলোকে বলেন, বেশ কয়েকজনের নাম বৈঠকে এসেছে। আগামী ছয় মাস পর পরবর্তী শূরা কমিটির সভায় মহাপরিচালক নির্ধারণ করা হবে।

মাওলানা নোমান ফয়েজীর সভাপতিত্বে মাদ্রাসায় অনুষ্ঠিত শূরা কমিটির বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন মুফতি নুর আহমদ, শেখ আহমদ, মাওলানা শুয়াইব, ওমর ফারুক প্রমুখ। শনিবার বিকেল চারটায় শুরু হওয়া বৈঠক শেষ হয় রাত আটটায়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *