ঘরে বসেই মিলবে ৩৬ টাকায় টিসিবির পেঁয়াজ

ই-কমার্স প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে রাষ্ট্রায়ত্ত বিপণন প্রতিষ্ঠান টিসিবির আমদানি করা পেঁয়াজ ৩৬ টাকা কেজি দরে বিক্রি শুরু হয়েছে। এতে একজন ক্রেতা সর্বোচ্চ ৫ কেজি পেঁয়াজ কিনতে পারবেন।

আজ রবিবার এক ভার্চুয়াল অনুষ্ঠানে ‘ঘরে বসে স্বস্তির পেঁয়াজ’ নামে অনলাইনে পেঁয়াজ বিক্রির এ কর্মসূচি উদ্বোধন করেন বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি।

প্রাথমিকভাবে নির্বাচিত টিসিবির অনলাইন ডিলারশিপ পেয়েছে পাঁচটি প্রতিষ্ঠান। সেগুলো হলো, চালডাল, স্বপ্ন অনলাইন, সিন্দাবাদ ডটকম, সবজি বাজার ডটকম এবং যাচাই ডটকম। এ ছাড়া সোমবার থেকে বিডিসোল, একশপ ও অন্য একটি প্রতিষ্ঠান এ ধারাবাহিকতায় যুক্ত হতে পারে। উইন্ডি নামে নারী উদ্যোক্তাদের একটি কমন প্লাটফর্ম থেকেও টিসিবির পেঁয়াজ বিক্রি হবে।

প্রাথমিকভাবে রাজধানী ঢাকা ও বন্দরনগরী চট্টগ্রামের বাসিন্দারা আটটি অনলাইন প্রতিষ্ঠনের মাধ্যমে টিসিবির সাশ্রয়ী মূল্যের পেঁয়াজ কেনা যাবে।

এ সময় প্রধান অতিথির বক্তব্যে বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, ক্রেতা সাধারণের প্রতি অনুরোধ-আপনারা আতঙ্কিত না হয়ে অনলাইনে নির্ধারিত পরিমাণে পেঁয়াজ কিনুন। একটি পরিবারের জন্য সপ্তাহে কত কেজি পেঁয়াজ লাগে সেভাবে সীমা নির্ধারণ করে দেওয়া হয়েছে। আপনারা এ সীমা মেনে চলুন। কোথাও কোনো অনিয়ম দেখা দিলে ই-ক্যাব বা এখানে যে সমন্বয় কমিটি রয়েছে তাদের জানান। তারা দ্রুত সমাধান করবে।

তিনি বলেন, টিসিবি ৩০০ থেকে ৫০০ ট্রাক দিয়ে বিক্রি করতে পারে কিন্তু বড় পরিসরে সাশ্রয়ী মূল্যে পেঁয়াজ সরবরাহের জন্য অনলাইনে ই-ক্যাবের মাধ্যমে পেঁয়াজ বিক্রির প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে। প্রথমে হয়তো কিছু কিছু সমস্যা হতে পারে তবে সামনের দিনগুলোতে আরো সহজ হবে। ধীরে ধীরে আরো বড় পরিসরে করা হবে।

অনুষ্ঠানে বাণিজ্য সচিব মো. জাফর উদ্দীন, টিসিবির চেয়ারম্যান ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. আরিফুল হাসান, ই-ক্যাব সভাপতি শমী কায়সার, সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ আব্দুল ওয়াহেদ তমালসহ বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা বক্তব্য দেন।

উল্লেখ্য, ভারত রপ্তানি বন্ধ করায় গত বছরের মতো এবারও লাগামহীন হয়ে উঠেছে দেশে পেঁয়াজের বাজার। প্রতি কেজি পেঁয়াজের দাম দ্বিগুণ বেড়ে গেছে। গত শুক্রবার নাগাদ খুচরায় ভারতীয় পেঁয়াজ ৬০ টাকা থেকে ৭০ টাকা আর দেশি ক্রস জাতীয় পেঁয়াজ ৮০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *