ছাত্রীর আপত্তিকর ছবি তুলে এক লাখ টাকা দাবি

পিরোজপুরের নাজিরপুরে একসঙ্গে হেঁটে যাওয়া কলেজছাত্রী (১৭) ও স্কুলছাত্রকে (১৫) বুধবার আটকে রেখে মারধর এবং মেয়েটির আপত্তিকর ছবি তুলে সেগুলো ছড়িয়ে দেওয়ার হুমকি দিয়ে টাকা দাবির অভিযোগ পাওয়া গেছে। দুই শিক্ষার্থীকে নাজিরপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনায় ছাত্রীর বাবা রাতে মামলা করেছেন। ওই মামলায় একজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, মেয়েটি উপজেলা সদরের একটি কলেজের ছাত্রী। আর ছেলেটি স্থানীয় একটি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির ছাত্র। তারা প্রতিবেশী।
শিক্ষার্থীদের পরিবারের সদস্যদের ভাষ্য, বুধবার সকালে দুই শিক্ষার্থী একসঙ্গে হোগলাবুনিয়া গ্রামে যাচ্ছিল। পথে ঘোপেরখাল এলাকায় তিন যুবক ঘোপেরখাল গ্রামের মনির শেখ (৪০) ও অভিজিৎ শিকদার (২৫) এবং শাঁখারীকাঠি গ্রামের শফিকুর রহমান মল্লিক (২৮) তাদের পথরোধ করেন। তাদের পাশের একটি কলাবাগানে নিয়ে যান তাঁরা। সেখানে ওই কলেজছাত্রী ও স্কুলছাত্রকে তাঁরা মারধর করেন। দিনভর আটকে রেখে চলে এই নিপীড়ন। তাঁরা মুঠোফোনে মেয়েটির আপত্তিকর ছবি তোলেন। পরে এই ছবি অনলাইনে ছড়িয়ে দেওয়ার হুমকি দিয়ে তিন যুবক মেয়েটির বাবার কাছে মুঠোফোনে এক লাখ টাকা দাবি করেন। সন্ধ্যার দিকে দুই শিক্ষার্থীকে উদ্ধার করা হয়। রাতে এ ঘটনায় ছাত্রীর বাবা বাদী হয়ে তিনজনের বিরুদ্ধে নাজিরপুর থানায় মামলা করেন।
নাজিরপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মুনিরুল ইসলাম বলেন, এই মামলার প্রধান আসামি মনির শেখকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার তাঁকে আদালতে সোপর্দ করা হবে। অন্য আসামিদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

2 × three =

Translate »