পেঁয়াজের মজুদ যথেষ্ট, আতঙ্কিত হয়ে অতিরিক্ত পেঁয়াজ কিনবেন না

দেশে দুই থেকে তিন মাস চলার মতো পর্যাপ্ত পেঁয়াজ মজুদ আছে জানিয়ে বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি আতঙ্কিত হয়ে বেশি না কেনার আহ্বান জানিয়েছেন।

বুধবার বেলা সোয়া ২টার দিকে সচিবালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ আহ্বান জানান।

বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, দেশে দুই কারণে পেঁয়াজের দাম বাড়ছে। প্রথমত, ভারত হঠাৎ রপ্তানি বন্ধ করে দেওয়ায় দেশের বাজারে চাপ বেড়েছে। দ্বিতীয়ত, ‘পেনিক বায়িং’ তথা আতঙ্কিত হয়ে বেশি পরিমাণ কিনছেন ক্রেতারা।

এছাড়া ভারত রপ্তানি বন্ধ করে দিয়েছে এ খবরে এক শ্রেণির অসাধু ব্যবসায়ীরাও পরিস্থিতির সুযোগ নিচ্ছে বলে মনে করেন তিনি।

টিপু মুনশি বলেন, আতঙ্কিত হয়ে যেন বেশি পেঁয়াজ না কেনেন ক্রেতারা। দুই তিন মাস চলার মতো পেঁয়াজের যথেষ্ট মজুদ আছে। এক মাসের মধ্যে অবস্থা স্বাভাবিক করে ফেলবো।

পেঁয়াজ আমদানির প্রস্তুতি নেওয়া ছিল জানিয়ে তিনি বলেন, বিকল্প বাজার তথা মিয়ানমার, তুরস্ক, মিশর ও চীন থেকে পেঁয়াজ আমদানির উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। ইতোমধ্যে তুরস্ক থেকে আমদানি করতে এলসি খোলা হয়েছে।

বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, প্রয়োজনে টিসিবির মাধ্যমে এক লাখ টন পেঁয়াজ আমদানি করা হবে। সময় পেলে একমাসের মধ্যেই বাজার স্বাভাবিক করতে পারবো।

প্রসঙ্গত, কোনো ধরনের ঘোষণা ছাড়াই সোমবার থেকে পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধ করে দেয় ভারত। এ খবর ছড়িয়ে পড়তেই দেশের বাজারে পেঁয়াজের দাম বাড়তে থাকে। মঙ্গলবার বিকেল নাগাদ কেজিপ্রতি পেঁয়াজের দাম দ্বিগুণের বেশি ছাড়িয়ে যায়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *