নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন কঙ্গনা

মুম্বাই সরকারের বিরুদ্ধে লড়াইটা আরও এক ধাপ এগিয়ে নিয়ে গেলেন বলিউডের আলোচিত, সমালোচিত ও বিতর্কিত অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাউত। রবিবার বিকালে তিনি মুম্বাইয়ের রাজ্যপাল ভগৎসিংহ কোশিয়ারির সঙ্গে দেখা করেন। সঙ্গে ছিলেন বোন রাঙ্গোলি। তারা দীর্ঘক্ষণ ধরে কথাও বলেন।

যদিও রাজ্যপালের সঙ্গে কঙ্গনার ঠিক কী আলোচনা হয়েছে, তা সবিস্তার উল্লেখ না করলেও বৈঠকের শেষে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব সরকারের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দেন নায়িকা। কঙ্গনার দাবি, ‘সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যু-কাণ্ডে মুখ খোলার জন্যই আমাকে নিশানা করা হচ্ছে। হেনস্থা করা হচ্ছে। আমি নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছি।’

একইসঙ্গে অভিনেত্রীর হুঁশিয়ারি, ‘মুম্বাই আমার কর্মস্থল। আমাকে এখান থেকে উপড়ে ফেলা যাবে না। কত অন্যায়-অবিচারের শিকার হতে হয়েছে, তা রাজ্যপালকে জানিয়েছি। তিনি নিজের মেয়ের মতো আমার কথা মন দিয়ে শুনেছেন। আশা করি, সুবিচার পাব। পাশাপাশি আমাদের মতো মেয়েদের আস্থাও ফিরে আসবে।’

রাজ্যপালের পাশাপাশি পুরনো ‘শত্রু’ করণী সেনাকেও পাশে পেয়েছেন কঙ্গনা। পুরনো ‘শত্রুতা’ ভুলে নায়িকার পক্ষে তারা মুখ খুলেছেন। এছাড়া তাকে যাবতীয় সাহায্যের প্রতিশ্রুতিও দিয়েছেন করণী সেনার ভারপ্রাপ্ত কর্তারা। মুম্বাইয়ে কঙ্গনার বাড়িতে গিয়ে ওই কট্টরপন্থী সংগঠনের আশ্বাস, শহরে তার নিরাপত্তার দিকে তারা খেয়াল রাখবেন।

প্রসঙ্গত, সুশান্তের মৃত্যুর পর থেকেই মুম্বাই পুলিশ তথা মহারাষ্ট্র সরকারের বিরুদ্ধে সরব কঙ্গনা। মুম্বাইকে তিনি ‘পাকিস্তান অধিকৃত কাশ্মীর’ বলে তোপ দাগেন। তার পরই ‘প্রতিঘাত’ শুরু করে উদ্ধব ঠাকরে সরকার। কঙ্গনাকে মুম্বাইতে পা রাখতে দেবেন না হুঁশিয়ারি দেন শিবসেনা মুখপাত্র সঞ্জয় রাউত।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *