বেড়া উপজেলা চেয়ারম্যানের মৃত্যুতে স্বরাষ্ট্র সংসদীয় কমিটির সভাপতির শোক

করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন পাবনার বেড়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল কাদের। গতকাল বৃহস্পতিবার রাতে রাজধানীর স্কয়ার হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যুবরণ করেন তিনি।

বেড়া উপজেলা চেয়ারম্যান আব্দুল কাদের-এর মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন স্থানীয় সংসদ সদস্য ও স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় কমিটির সভাপতি মো. শামসুল হক টুকু। আজ শুক্রবার এক শোক বার্তায় তিনি আব্দুল কাদেরের শোক সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমাবেদনা জ্ঞাপন করেছেন।

মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল কাদের করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে গত ৩ সেপ্টেম্বর স্কয়ার হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৭৩ বছর। তিনি স্ত্রী, ২ ছেলে, ২ মেয়ে ও অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন। তাঁর মৃত্যুতে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

আওয়ামী লীগের ত্যাগী নেতা হিসেবে সুপরিচিত আব্দুল কাদের ১৯৭৪ সালে পাবনা জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি ও ১৯৭৮ সালে পাবনা জেলা আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক নির্বাচিত হন। ১৯৬৯ সালে শহীদ বুলবুল কলেজে ছাত্র সংসদের ও ১৯৭৪ সালে সরকারি এডওয়ার্ড বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের ছাত্র সংসদের ভিপি নির্বাচিত হন। ১৯৭২ সালে নগরবাড়ি ঘাটে শ্রমিক ইউনিয়ন প্রতিষ্ঠা করে প্রতিষ্ঠাতা-সভাপতির দায়িত্ব পালন করেন। ১৯৭২ সালে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমান নগরবাড়ি মুজিব বাঁধ উদ্বোধনকালে ঐতিহাসিক বিশাল জনসভার পরিচালনার দায়িত্ব পালন করেন। ১৯৭২ সালে কাশিনাথপুর শহীদ নূরুল হোসেন ডিগ্রি কলেজ প্রতিষ্ঠা করেন এই মুক্তিযোদ্ধা। ১৯৭২ সালে জাতসাখিনী ইউনিয়নের চকভরিয়া গ্রামে তার পিতার নামে একটি বিদ্যালয় প্রতিষ্ঠা করেন।

আজীবন জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমানের আদর্শের সৈনিক হিসেবে সক্রিয় রাজনীতি করেছেন আব্দুল কাদের। তিনি প্রতিটি আন্দোলন-সংগ্রামে পাবনায় অগ্রভাগে থেকে নেতৃত্ব দিয়েছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *