ট্রান্সফ্যাটজনিত হৃদরোগ: বাংলাদেশের জন্য ভয়াবহ এক পরিস্থিতি

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বুধবারে প্রকাশ করা এক প্রতিবেদনে বলেছে, বিশ্বে ট্রান্সফ্যাট গ্রহণের কারণে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুর প্রায় দুই তৃতীয়াংশই হয় বাংলাদেশ সহ ১৫টি দেশে। কেন হয় ট্রান্সফ্যাটজনিত হৃদরোগ?

ঢাকার বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের হৃদরোগ বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক হিমেল সাহা বলছেন বাংলাদেশে যত মানুষ হৃদরোগে আক্রান্ত হন তার বেশিরভাগের জন্যই দায়ী এই ট্রান্সফ্যাট।

সার্বিকভাবে চিকিৎসক ও গবেষকরা চর্বি ও ট্রান্সফ্যাটকে হৃদরোগের জন্য দায়ী করেন। বাংলাদেশে অসংক্রামক রোগে যত মানুষ মারা যায় তার অর্ধেকই মারা যায় এই হৃদরোগে, যার সংখ্যা প্রায় তিন লাখ।

গবেষকরা বলছেন হৃদরোগ এভাবে ছড়িয়ে পড়ার বড় কারণই হলো ট্রান্সফ্যাট।

মিস্টার সাহা বিবিসি বাংলাকে বলছেন, “বাংলাদেশের মানুষের মধ্যে ভাজা-পোড়া, বিস্কুট, চানাচুর, চিপস বা এ ধরণের অসংখ্য অস্বাস্থ্যকর খাবার খাওয়ার প্রবণতা আছে। এটাই ট্রান্সফ্যাটজনিত হৃদরোগের কারণ”।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *