PUBG-র ‘লেভেলে’ পৌঁছতে ব্যাংক অ্যাকাউন্ট লুট করল কিশোর!

ঘটনা কিছু দিন আগের। তখনও এদেশে PUBG গেম ব্যান হয়নি। আর সেই সময়েই PUBG-তে মগ্ন ১৫ বছরের এক কিশোর গেমের পরের ধাপে এগিয়ে যাওয়ার লক্ষ্যে দাদুর ব্যাংক অ্যাকাউন্ট থেকে ২.৩ লক্ষ টাকা খরচ করে বসে।

আসলে সেই কিশোরের PUBG অ্যাকাউন্টটি হ্যাক হয়ে যায়। আর তার কিছু দিনের মধ্যেই ভারতে ব্যান হয়ে যায় PUBG। আর এসবের মাঝেই পরের ধাপে উঠতে গিয়ে রীতিমতো গোত্তা থেকে হয় ছেলেটিকে।

এরপরই তার দাদুর মনে সন্দেহ জাগে যে, কোথা থেকে কী ভাবে এত টাকা তাঁর অ্যাকাউন্ট থেকে গায়েব হয়ে গেল? টেকস্যাভি নাতির কাছে প্রশ্ন করতেই সে গল্প ফাঁদে। দাদুকে সে জানায় যে, তাঁর ব্যাংক অ্যাকাউন্টটি হ্যাক হয়েছে। আর তারপরই সাইবার সেলে অভিযোগ দায়ের করেন তিনি।

বিএসএনএল-এর মতো সরকারি টেলিকম সংস্থায় দীর্ঘদিন কর্মরত ছিলেন ওই ব্যক্তি। অবসর নিয়েছিলেন বেশ কিছু দিন আগেই। তবে খুব সম্প্রতি পেনশন ফান্ডের সব টাকা তিনি ব্যাংক অ্যাকাউন্টে ট্রান্সফার করিয়েছিলেন।

তদন্তে উঠে আসে যে, ওই ব্যক্তির ডেবিট কার্ড ব্যবহার করে একটি Paytm অ্যাকাউন্টে টাকা পাঠানো হয়েছিল। পুলিশ পরে ওই ব্যক্তির বাড়ির সদস্যদের জিজ্ঞাসাবাদ করে জানতে পারে যে, প্রায় সকলের কাছেই তিনি এটিএমের পিন নম্বরটি শেয়ার করে রেখেছিলেন।

শেষমেশ ভয়ে পুলিশে কাছে ১৫ বছরের সেই কিশোর স্বীকার করে নেয় যে, ‘UC’ বা পয়েন্টস দরকার ছিল তার। PUBG গেমে অস্ত্র কিনতেই এই পয়েন্টসের প্রয়োজন পড়ে। আর সেই কারণেই সে Paytm অ্যাকাউন্টে টাকা পাঠায়, দাদুর ডেবিট কার্ড ব্যবহার করেই। এ ছাড়াও পুলিশকে সে আরও জানায় যে, OTP ব্যবহার করার পরই ফোন থেকে টেক্সট মেসেজও ডিলিট করে দেয়।

পরবর্তীতে সে পরিষ্কার বুঝে যায় যে, এবার ধরে পড়ে যাবে। আর তারপরই অ্যাকাউন্ট হ্যাক হওয়ার গল্পটি তৈরি করে ১৫ বছরের ওই কিশোর। পুলিশ ইতিমধ্যেই কাউন্সেলিং করেছে তার। ছেলেটির বাবা-মাকেও বিষয়টি সম্পর্কে জানিয়েছে পুলিশ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *