রোনাল্ডোর সেঞ্চুরি, পর্তুগালের জয়

সুইডেনের বিপক্ষে গোল করে ইতিহাসের দ্বিতীয় খেলোয়াড় হিসেবে আন্তর্জাতিক ফুটবলে গোলের সেঞ্চুরি পূরণ করলেন পর্তুগিজ ফরোয়ার্ড।

ইতিহাসের দ্বিতীয় হলেও রোনাল্ডোই প্রথম ইউরোপিয়ান যিনি এই মাইলফলক ছুঁতে পারলেন।

এমন অনন্য রেকর্ড করেই থেমে যাননি এই পর্তুগিজ সুপারস্টার,আরো একটি গোল করে দলকে জয় এনেও দিয়েছেন।

মঙ্গলবার রাতে নেশনস লিগে ৩ নম্বর গ্রুপের নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডোর জোড়া গোলে সুইডেনকে ২-০ গোলে হারিয়েছে পর্তুগাল।

ম্যাচের প্রথমার্ধ থেকে সুইডেনের রক্ষণভাগে অনেকবার হানা দিলেও লক্ষ্যভেদ করতে পারছিল না পর্তুগাল।

ম্যাচের ৪৪তম মিনিটে গোল বাঁচাতে জাও মোতিনহোকে ফাউল করে দ্বিতীয় হলুদ কার্ড দেখেন সুইডেনের গুস্তাভ সভেন্সন। ১০ জনে পরিণত হয় সুইডেন। এই ফাউলের কারণে ডি বক্সের ২৫ গজ দূরে ফ্রিকিক পায় পর্তুগাল।

৪৫ মিনিটে রোনাল্ডোর দুর্দান্ত ফ্রি-কিকে পর্তুগাল লিড নেয় । এই গোলে আর্ন্তজাতিক ক্যারিয়ারে গোলের সেঞ্চুরি পূরণ করেন রোনাল্ডো।

১-০ তে বিরতিতে যায় দুই দল। দ্বিতীয়ার্ধে নেমে গোল শোধ করতে ব্যর্থ হতে থাকে ১০ জনের সুইডেন দল। ম্যাচের ৭২ মিনিটে আরেকটি দুর্দান্ত গোল করেন সিআরসেভেন। ১০১ এ নিয়ে যান ব্যক্তিগত গোলসংখ্যাকে। অর্থাৎ গুনে গুনে আর মাত্র ৯ টি গোল দিয়ে আন্তর্জাতিক ফুটবল ইতিহাসে সর্বোচ্চ গোলদাতার রেকর্ডটি নিজের করে নেবেন। বর্তমানে এ রেকর্ডের মুকুট পরে আছেন ইরানের আলি দাইয়ি। ১০৯ গোল করে ইতিহাসের প্রথম ফুটবলার হিসেবে আন্তর্জাতিক গোলের সেঞ্চুরি করেছিলেন।

আন্তর্জাতিক গোলের সেঞ্চুরির জন্য ৩৫ বছর বয়সী রোনালদোর অপেক্ষাটা অবশ্য বেশ দীর্ঘ ছিল। ৯৯তম গোলের পর দীর্ঘ ১০ মাস অপেক্ষায় ছিলেন। করোনার কারণে খেলা বন্ধ থাকায় অপেক্ষা এতো লম্বা হয়েছিল। শততম গোলটি করতে ১৬৫ ম্যাচ খেলতে হয়েছে রোনাল্ডোকে।

রোনালদো ৯৯তম গোলটি করেছিলেন ২০১৯ সালের নভেম্বরে লাক্সেমবার্গের বিপক্ষে।

তথ্যসূত্র: গোল ডট কম

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *