ইংল্যান্ডে নিষিদ্ধ করা হচ্ছে ৬ জনের বেশি লোকের সামাজিক সমাবেশ

ব্রিটেনের প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন করোনাভাইরাস বিস্তারের লাগাম টেনে ধরতে ইংল্যান্ডে ছয়জনের বেশি মানুষের সামাজিক সমাবেশ নিষিদ্ধ ঘোষণা করতে যাচ্ছেন। বুধবার স্থানীয় সংবাদমাধ্যমের প্রতিবেদনে একথা বলা হয়। খবর এএফপি’র।
প্রতিবেদনে বলা হয়, নতুন এ পদক্ষেপ গ্রহণের মাধ্যমে বাসা-বাড়ি, পার্ক, বার ও রেস্তোরাঁসহ ইনডোর ও আউটডোর উভয় স্থানে সামাজিক সমাবেশের সর্বোচ্চ সংখ্যা ৩০ জন থেকে কমিয়ে ছয়জন করা হচ্ছে। আর এ পদক্ষেপ আগামী ১৪ সেপ্টেম্বর সোমবার থেকে কার্যকর হতে যাচ্ছে।
ব্রিটিশ ব্রডকাস্টিং কর্পোরেশন (বিবিসি) পরিবেশিত খবরে বলা হয়, ‘এ নিষেধাজ্ঞা শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, কর্মক্ষেত্র বা কোভিড-১৯ নিরাপত্তা বিশিষ্ট বিবাহ অনুষ্ঠান, অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া এবং সংগঠিত দলীয় খেলার ক্ষেত্রে প্রযোজ্য হবে না।’
স্থানীয় সংবাদপত্রের খবরে বলা হয়, করোনাভাইরাসে আক্রান্ত মানুষের সংখ্যা নতুন করে বেড়ে যাওয়ার কারণে ডাউনিং স্ট্রীট বুধবার তড়িগড়ি করে সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করে।
সরকারি সুত্রে জানা যায়, রোববার নতুন করে মোট ২ হাজার ৯৮৮ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে। মে মাসের পর থেকে প্রতিদিনের বৃদ্ধির হিসাবে এ সংখ্যা সর্বোচ্চ।
এদিকে জনস হপকিন্স ইউনিভার্সিটির সেন্টার ফর সিস্টেমস সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের দেয়া সর্বশেষ পরিসংখ্যান অনুযায়ী, ব্রিটেনে এ পর্যন্ত কোভিড-১৯-এ আক্রান্তের সংখ্যা ৩ লাখ ৫৪ হাজার ৯শ’ ছাড়িয়ে গেছে এবং মৃতের সংখা বেড়ে ৪১ হাজার ৬৭৫ জনে দাঁড়িয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *