‘স্বেচ্ছাসেবাকে প্রাতিষ্ঠানিক রূপ দিতে নীতিমালা হবে’

‘দেশে স্বেচ্ছাসেবাকে প্রাতিষ্ঠানিক রূপ দিতে জাতীয় নীতিমালা তৈরি করা হবে’ বলে মন্তব‌্য করেছেন স্থানীয় সরকারমন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম।

শনিবার (৫ সেপ্টেম্বর) মন্ত্রীর রাজধানীর মিন্টু রোডের সরকারি বাসভবনে জাতিসংঘ ও অন্যান্য উন্নয়ন সহযোগীদের সঙ্গে এক সভায় তিনি এ কথা বলেন।

এ বিষয়ে স্থানীয় সরকারমন্ত্রী মো. তাজুল ইসলামকে প্রধান পরামর্শক করে একটি ন্যাশনাল টেকনিক্যাল ওয়ার্কিং কমিটি গঠন করা হয়েছে।

মন্ত্রী বলেন, ‘‘দেশের বিভিন্ন দুর্যোগে, মানুষের বিপদে-আপদে এবং সংকটকালীন সময়ে ছাত্র-শিক্ষক, তরুণ-তরুণী এবং বিভিন্ন পেশাজীবীসহ সকল শ্রেণির মানুষ স্বেচ্ছাশ্রম দিয়ে থাকেন। কিন্তু তারা তাদের কাজের স্বীকৃতি সেভাবে পাচ্ছেন না। এই জাতীয় নীতিমালার মাধ্যমে স্বেচ্ছাসেবা কার্যক্রম জোরদার হবে। উন্নয়ন ধারা এগিয়ে নিতে এবং এসডিজি বাস্তবায়নে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে।

‘স্বেচ্ছাসেবার আনুষ্ঠানিক স্বীকৃতি এবং প্রাতিষ্ঠানিক রূপ দিতে একটি ন্যাশনাল টেকনিক্যাল ওয়ার্কিং কমিটি গঠন করা হয়েছে। এই টেকনিক্যাল কমিটির অধীনে কয়েকটি সাব-কমিটি থাকবে।”

মন্ত্রী আরও বলেন, ‘টেকনিক্যাল কমিটির অধীনে থাকা সাব-কমিটি সারাবিশ্বের সাথে তুলনা করে বাংলাদেশের প্রেক্ষাপট বিবেচনায় নিয়ে স্বেচ্ছাসেবাকে কীভাবে প্রাতিষ্ঠানিক রূপ দেওয়া যায় তা নির্ধারণ করবেন। আগামী ৩০ ডিসেম্বরের মধ্যে এই জাতীয় নীতিমালা প্রস্তুত করা হবে।’

সভায় স্থানীয় সরকার বিভাগের সিনিয়র সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ, যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের সচিব আখতার হোসেন, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের পাবলিক প্রাইভেট পার্টনারশিপ কর্তৃপক্ষের সচিব ও সিইও সুলতানা আফরোজ, ইউএনিডিপির আবাসিক প্রতিনিধি সুদীপ্ত মুখার্জি, ওয়াটার এইড এর কান্ট্রি ডিরেক্টর হাসিন জাহান এবং স্থানীয় সরকার বিভাগের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাসহ সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিবর্গ অংশ নেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

five × three =

Translate »