আবারও যৌথ সামরিক মহড়া শুরু করেছে তুরস্ক ও আজারবাইজান

স্বায়ত্তশাসিত নাখচিভান এলাকায় যৌথ সামরিক মহড়া চালাচ্ছে আজারবাইজান ও তুরস্ক। আর্মেনিয়ার সঙ্গে আজারবাইজানের উত্তেজনার মধ্যেই এ মহড়া চলছে। গতমাসেও দুই দেশ এই এলাকায় যৌথ মহড়া চালিয়েছে।

চলমান মহড়ায় দুই দেশের দুই হাজার ৬০০ সেনা অংশ নিচ্ছে। এছাড়া মহড়ায় ট্যাঙ্ক, সাজোয়া যান, হেলিকপ্টার ও ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবহার করা হচ্ছে। শত্রুর কল্পিত অবস্থানে ক্ষেপণাস্ত্র ও গোলা ছোড়া হচ্ছে। শত্রুর কল্পিত ড্রোন ধ্বংসের মহড়াও চালিয়েছে দুই দেশ।

আজারবাইজানের আকাশসীমায় মাঝে মধ্যেই আর্মেনিয়া থেকে গোয়েন্দা ড্রোন প্রবেশের ঘটনা ঘটে। গতমাসের যৌথ মহড়া নাখচিভানসহ অন্তত পাঁচটি এলাকায় চালানো হয়েছে। সে সময় দুই দেশের জঙ্গিবিমানও এতে অংশ নেয়।

আজারবাইজান এমন সময় তুরস্কের সঙ্গে যৌথ মহড়া চালাচ্ছে যখন প্রতিবেশী আর্মেনিয়ার সঙ্গে সীমান্ত উত্তেজনা চলছে।

সম্প্রতি আর্মেনিয়ার সেনাবাহিনী সীমান্তে আজারবাইজানের সেনাদের ওপর হামলা চালিয়েছে। এর ফলে আজারবাইজানের বেশ কয়েকজন সেনা হতাহত হয়েছে। তুরস্কে এ ঘটনায় আজারবাইজানের প্রতি সমর্থন ঘোষণা করেছে। তুরস্কের সঙ্গে আজারবাইজানের সামরিক সহযোগিতা বৃদ্ধির প্রতিবাদ জানিয়েছে আর্মেনিয়া।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *