পাবজিসহ আরও ১১৮ চীনা অ্যাপ নিষিদ্ধ করলো ভারত

লাদাখ সীমান্তে নতুন উত্তেজনার মধ্যে চীনের আরও ১১৮টি অ্যাপ নিষিদ্ধ করেছে ভারত। এই তালিকায় রয়েছে জনপ্রিয় অনলাইন গোলাগুলির খেলা পাবজি মোবাইল। বুধবার ভারত সরকারের এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, দেশের সার্বভৌমত্ব, মর্যাদা, প্রতিরক্ষা এবং সুরক্ষার স্বার্থে এই পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে। এর আগে গত জুনে টিকটকসহ ৫৯টি চীনা অ্যাপ নিষিদ্ধ করে ভারত। সম্প্রচারমাধ্যম এনডিটিভির প্রতিবেদন থেকে এসব তথ্য জানা গেছে।

গত মে মাস থেকেই লাদাখে ভারত ও চীনের মধ্যে সীমান্ত সংঘাত জারি রয়েছে। গত ১৫ জুন তা চরমে ওঠে। পেট্রোলিং পয়েন্ট-১৪-এর কাছে দুই দেশের সেনার মধ্যে সংঘর্ষে প্রাণ হারায় ভারতের ২০ জন সেনা। তারপর থেকে সীমান্তে শান্তি ফেরাতে সামরিক ও কূটনৈতিক স্তরে একাধিক বৈঠক হয়েছে। তবে চূড়ান্ত কোনও সমাধানে পৌঁছানো যায়নি। এরমধ্যেই গত ২৯ আগস্ট সীমান্তে একটি চীনা আগ্রাসন প্রতিহতের দাবি করেছে ভারতের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়। তবে আগ্রাসন প্রচেষ্টার অভিযোগ অস্বীকার করেছে বেইজিং।

জুনের সীমান্ত সংঘাতের পর ওই মাসেই চীনের নির্মিত জনপ্রিয় ৫৯টি অ্যাপ নিষিদ্ধ করে ভারত। নিরাপত্তা নিয়ে উদ্বেগের কথা জানিয়ে এসব অ্যাপ নিষিদ্ধ করা হয়। আর এবারে নতুন উত্তেজনার পর দেশটির আরও ১১৮টি অ্যাপ নিষিদ্ধ করা হয়েছে। এ পদক্ষেপের ব্যাখ্যায় ভারতের আইটি মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, এসব অ্যাপের মাধ্যমে তথ্য চুরি এবং ভারতের বাইরের সার্ভারে তা পাচারের বহু অভিযোগ পাওয়া গেছে।

ভারতে নতুন করে নিষিদ্ধের তালিকায় যুক্ত হওয়া গেম পাবজি মোবাইল-এর নির্মাতা প্রতিষ্ঠান চীনের তানসেন্ট। বিশ্বের শীর্ষ পাঁচটি স্মার্টফোন গেমের একটি এটি। ৭৩ কোটি ৪০ লাখেরও বেশিবার এটি ডাউনলোড করা হয়েছে। ভারতে গেমটির সক্রিয় খেলোয়াড় রয়েছে প্রায় পাঁচ কোটি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *