দেশে ফিরলেন সাকিব

যুক্তরাষ্ট্র থেকে দেশে ফিরেছেন অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। মঙ্গলবার (০১ সেপ্টেম্বর) দিবাগত রাত ২টা ৫০ মিনিটে কাতার এয়ারলাইন্সের একটি ফ্লাইটে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পৌঁছান তিনি।

 

এবার পাঁচ মাস পর দেশে ফিরলেন তারকা এ ক্রিকেটার। এর আগে গত মার্চে যুক্তরাষ্ট্রে গিয়েছিলেন তিনি। আর গত এপ্রিল মাসে সেখানেই দ্বিতীয়বারের মতো কন্যা সন্তানের বাবা হন।

সাকিবের এবারের ফেরাটা একটু ভিন্ন। কারণ সবধনের ক্রিকেট থেকে এক বছরের নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে আবার মাঠের ফেরার লক্ষ্য নিয়েই এবার দেশে ফিরেছেন সাকিব।

অনেকটা গোপনীয়তা রক্ষা করেই দেশে ফিরেছেন সাকিব। এজন্য তার দেশে আসার বিষয়টি নিয়ে বেশ কয়েকদিন ধরেই ধোঁয়াশার মধ্যে ছিল। গণমাধ্যমে খবর প্রকাশ হয়েছিল যে ৩১ আগস্ট দেশে ফিরবেন তিনি। এরপর থেকেই তার দেশে ফেরা নিয়ে একটা বিভ্রান্তি তৈরি হয়।

সাবিকের এখন করোনা পরীক্ষা করা হবে। এ সময় ঢাকায় নিজের বাসাতেই অবস্থান করবেন তিনি। পরে অনুশীলনের জন্য বিকেএসপিতে চলে যাবেন। সেখানেই ব্যক্তিগত উদ্যোগে অনুশীলন শুরু করবেন সাকিব। সেখানে তার অনুশীলনের জন্য বিশেষ ব্যবস্থা করা হয়েছে। যদিও নিষেধাজ্ঞার মেয়াদ শেষ হওয়ার আগ পর্যন্ত সাকিব বিসিবির কোনো সুবিধা নিতে পারবেন না।

সাকিবের নিষেধাজ্ঞার মেয়াদ শেষ হবে ২৮ অক্টোবর। অর্থাৎ ২৯ অক্টোবর থেকেই সাকিব আবার আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফিরতে পারবেন।

বাংলাদেশ দলের শ্রীলঙ্কা সফরের তিন ম্যাচের টেস্ট সিরিজের প্রথম টেস্ট আগামী ২৪ অক্টোবর শুরু হওয়ার কথা রয়েছে। সাকিবের নিষেধাজ্ঞার মেয়াদ শেষ হওয়ার চার দিন আগে শুরু হবে সেই টেস্ট। তাই সিরিজের দ্বিতীয় টেস্ট থেকেই টাইগার একাদশে সাকিবের নাম থাকার সম্ভাবনা। তাই বলাই যাচ্ছে যে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে দ্বিতীয় টেস্ট ম্যাচ দিয়েই আবারও আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে সাকিবের প্রত্যবর্তন হচ্ছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *