শেষমেশ উহানের সব স্কুল খুলছে ১ সেপ্টেম্বর

চীনের হুবেই প্রদেশের উহান শহরে গত বছরের ৩১ ডিসেম্বর প্রথম করোনাভাইরাস ধরা পড়ে। সেখান থেকে প্রাণঘাতী এ ভাইরাস ছড়িয়ে পড়ে পুরো বিশ্বে। তবে উহানে নতুন করে সংক্রমণ নেই অনেক দিন। সবকিছুই স্বাভাবিক রূপে ফিরছে। তাই স্কুলসহ সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়া হচ্ছে।

রয়টার্সের প্রতিবেদনে বলা হয়, আগামী মঙ্গলবার থেকে শহরটির ২ হাজার ৮৪২টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলবে। এসব প্রতিষ্ঠানে শিক্ষার্থীর সংখ্যা প্রায় ১৪ লাখ।
শিক্ষার্থীদের স্কুলে আসা-যাওয়ার সময় মাস্ক পরতে এবং সম্ভব হলে গণপরিবহন এড়িয়ে চলতে পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। একই সঙ্গে স্কুলগুলোকেও রোগনিয়ন্ত্রণে যথাযথ ব্যবস্থা রাখতে, শিক্ষার্থীদের প্রশিক্ষণ দিতে ও গাদাগাদি এড়াতে বলা হয়েছে। এ ছাড়া স্কুলগুলোকে প্রতিদিনের অবস্থা নিয়ে উহানের স্বাস্থ্য কর্তৃপক্ষকে রিপোর্ট দিতে হবে।
উহানের স্কুলের বিদেশি শিক্ষার্থীদের (ক্লাসে যাওয়া–সংক্রান্ত) স্কুল কর্তৃপক্ষের কোনো নোটিশ না পেলে স্কুলে যেতে হবে না।

এদিকে উহানের বিশ্ববিদ্যালয়গুলো আগামীকাল সোমবার থেকে খুলছে।
প্রসঙ্গত, গত বছরের ডিসেম্বরের শেষ দিকে মধ্য চীনের হুবেই প্রদেশের উহান থেকে ছড়িয়ে পড়ে কোভিড-১৯। এ রোগে বিশ্বজুড়ে এরই মধ্যে প্রাণহানির সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৮ লাখ ৪৩ হাজারের বেশি। আর আক্রান্তের সংখ্যা আড়াই কোটির বেশি।

করোনাভাইরাসের আঁতুড়ঘর হলেও এ ভাইরাসের সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে নিতে সক্ষম হয়েছে চীন। দেশটিতে নতুন আক্রান্তের সংখ্যা খুবই কম। অনেকটা স্বাভাবিক জীবনে ফিরে এসেছে জনসংখ্যার দিক থেকে বিশ্বের বৃহত্তম দেশটি।

গত বছরের ডিসেম্বরের পর এ বছরের পুরো জানুয়ারি থেকে লকডাউনে ছিল উহান। ওই শহরে ৩ হাজার ৮৬৯ জন কোভিড–১৯–এর কারণে মারা গেছেন। চীনে মৃত্যুর ৮০ শতাংশই উহানের মানুষ। এপ্রিলের পর উহানের জীবনযাত্রা কিছুটা স্বাভাবিক হতে শুরু করে। তুলে নেওয়া হয় লকডাউন। গত ১৮ মের পর এ শহরে করোনাভাইরাসে কেউ সংক্রমিত হননি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *