দক্ষিণ চীন সাগরে বেইজিংয়ের ‘ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা’

বেইজিং দক্ষিণ চীন সাগরের বিতর্কিত জলসীমায় ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ করেছে বলে জানিয়েছেন মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা। এর ফলে যুক্তরাষ্ট্র-চীন সম্পর্কের আরো অবনতি হবে বলে আশঙ্কা করছেন সংশ্লিষ্টরাI যেসব প্রতিষ্ঠান চীনকে সামরিকায়নে অব্যাহত সহায়তা দিচ্ছে, তাদের বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্রের নিষেধাজ্ঞার মাঝেই এসব কথিত ক্ষেপণাস্ত্র ছোড়া হয়েছে বলে জানিয়েছে সংবাদমাধ্যম ভয়েস অব আমেরিকা।

মার্কিন প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের এক কর্মকর্তার বরাত দিয়ে সংবাদমাধ্যম সিএনএন জানিয়েছে, চীনের মূল ভূ-খণ্ড থেকে গত বুধবার চারটি মাঝারি পাল্লার ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ করেছিল।

একজন মার্কিন প্রতিরক্ষা কর্মকর্তা গত বৃহস্পতিবার ভয়েস অব আমেরিকাকে জানান, চীনের সেনাবাহিনী চীনের মূল ভূখণ্ড থেকে হাইনান দ্বীপ ও প্যারাসেল দ্বীপাঞ্চলের মধ্যবর্তী জলসীমায় মাঝারি পাল্লার ক্ষেপণাস্ত্রগুলো নিক্ষেপ করেI চীনের সামরিক বাহিনী, সম্প্রতি এ জলসীমায় সামরিক মহড়া শুরু করে এবং একতরফাভাবে অন্যান্য কয়েকটি দেশের দাবি করা বিশাল সামুদ্রিক জলসীমা বন্ধ করে দেয়।

এদিকে চীনা পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র সিনিয়র কর্নেল অউ কিয়ান গত বৃহস্পতিবার বলেন, চীনের উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় কিংদাও এবং বিতর্কিত স্প্র্যাটলি দ্বীপপুঞ্জের মধ্যে পানি ও আকাশে মহড়া চালানো হয়েছে। তবে কোনো ধরনের ক্ষেপণাস্ত্রের কথা উল্লেখ করেননি ওই চীনা কর্মকর্তা। চীনা পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র জানান, কোনো দেশকে নিশানা করে মহড়া চালায়নি চীন। ভিয়েতনাম এ মহড়ার প্রতিবাদ জানিয়েছে।

দক্ষিণ চীন সাগরে অবস্থিত স্প্র্যাটলি দ্বীপপুঞ্জ চীনে ‘নানশা’ নামে পরিচিত।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

9 − 2 =

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Translate »