ফিলিস্তিনিদের শান্তি আগে, ইসরায়েলের সঙ্গে সম্পর্ক পরে: সৌদি

সংযুক্ত আরব আমিরাতের মতো ইসরায়েলের সঙ্গে কোনো ধরনের সম্পর্ক স্থাপন করবে না সৌদি আরব, যথক্ষণ না ইসরায়েল ফিলিস্তিনিদের সঙ্গে শান্তিচুক্তি করছে। দেশটি ইসরায়েলের সঙ্গে সম্পর্ক না করার নীতি বজায় রেখেছে।

গত সপ্তাহে ইসরায়েল এবং সংযুক্ত আরব আমিরাতের মধ্যে হঠাৎ করে শান্তিচুক্তির পর বুধবারই (১৯ আগস্ট) প্রথম এর প্রতিক্রিয়া জানিয়েছে সৌদি আরব। দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী ফয়সাল বিন ফারহান এ কথা বলেছেন।

এতে স্পষ্ট, তারা ইসরায়েলের সঙ্গে আমিরাতের সম্পর্ক স্থাপনের বিষয়টি পাত্তা না দিয়ে ফিলিস্তিনিদের সঙ্গে শান্তি চুক্তি করার বিষয়টিকে বেশি গুরুত্ব দিয়েছেন। অর্থাৎ ফিলিস্তিনিদের শান্তি আগে। এরপর ইসরায়েলের সঙ্গে সম্পর্ক করা যেতে পারে।

সংবাদমাধ্যম বলছে, এ চুক্তির পর জল্পনা ছড়িয়ে পড়েছিল, সৌদি আরবও একই পথ অনুসরণ করে ইসরায়েলের সঙ্গে সম্পর্ক স্থাপন করতে পারে। এবার সে বিষয় অনেকটা স্পষ্ট হয়ে গেছে পররাষ্ট্রমন্ত্রীর মন্তব্যে।

ইসরায়েল ও সংযুক্ত আরব আমিরাতের মধ্যে ঐতিহাসিক চুক্তির পর ফিলিস্তিনের ভাগ্যে কী ঘটতে যাচ্ছে, তা নিয়ে বিশ্লেষণ চলছে। যদিও এরইমধ্যে অনেক মুসলিম দেশ এর বিরোধিতা করে ফিলিস্তিনের সঙ্গে বিশ্বাসঘাতকতা আখ্যা দিয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *