করোনায় অনিশ্চিত আ.লীগের তিন সংগঠনের পূর্ণাঙ্গ কমিটি

জাতীয় সম্মেলনের আট মাসেও পূর্ণাঙ্গ কমিটি নেই আওয়ামী লীগের তিন সহযোগী সংগঠন কৃষক লীগ, শ্রমিক লীগ ও স্বেচ্ছাসেবক লীগের। কেন্দ্রীয় সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক এবং মহানগর শাখার সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক দিয়েই বিগত আট মাস ধরে সংগঠন তিনটির সাংগঠনিক কর্মকাণ্ড পরিচালিত হচ্ছে।

করোনাভাইরাসের কারণে মার্চ থেকে দেশের সব ধরনের কার্যক্রমে এক ধরনের স্থবিরতা বিরাজ করছে। আওয়ামী লীগের রেওয়াজ অনুযায়ী, শোকের মাস আগস্টে সাংগঠনিক তৎপরতা স্থবির থাকে। সার্বিক পরিস্থিতি বিবেচনায় সংগঠন তিনটির পূর্ণাঙ্গ কমিটি এখন অনেকটাই অনিশ্চয়তার মুখে।

সংগঠন তিনটির শীর্ষ নেতাদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, জাতীয় সম্মেলনের পরপরই প্রস্তাবিত পূর্ণাঙ্গ কমিটি অনুমোদনের জন্য মূল দল আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ হাসিনার কাছে জমা দেয় কৃষক লীগ, জাতীয় শ্রমিক লীগ ও স্বেচ্ছাসেবক লীগের শীর্ষ নেতৃত্ব। কিন্তু আওয়ামী লীগের জাতীয় সম্মেলন, সরকারের বর্ষপূর্তি, ঢাকার দুই সিটি করপোরেশন নির্বাচনকেন্দ্রিক ব্যস্ততা এবং দেশের বাইরে বিভিন্ন কর্মসূচিতে অংশ নেয়ায় পূর্ণাঙ্গ কমিটি অনুমোদন দিতে পর্যাপ্ত সময় পাননি আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

তবে শীর্ষ নেতারা আশা করছেন, প্রস্তাবিত পূর্ণাঙ্গ কমিটি সুবিধাজনক সময়েই অনুমোদন পাবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *