মারা গেছেন ট্রাম্পের ছোট ভাই

গুরুতর অসুস্থ ছোট ভাই রবার্ট ট্রাম্পকে দেখতে শুক্রবার (১৪ আগস্ট) নিউইয়র্কের একটি হাসপাতালে গিয়েছিলেন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। ৭২ বছর বয়সী ভাই খুব খারাপ সময় পার করছে জানান তিনি। তবে শনিবার (১৫ আগস্ট) রাতে রবার্টের মৃত্যুর কথা ঘোষণা করলেন ট্রাম্প।

এক বিবৃতিতে ৭৪ বছর বয়সী প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প বলেছেন, ‘আমি শোকসন্তপ্ত হৃদয়ে জানাচ্ছি আমার চমৎকার ভাই, রবার্ট আজ রাতে মারা গেছে। সে শুধু আমার ভাই ছিল না, আমার সেরা বন্ধু ছিল। তার অভাব খুব বোধ করবো, কিন্তু আমরা আবারও একসঙ্গে হবো। তার স্মৃতি আমার অন্তরে থাকবে সারা জীবন। রবার্ট আমি তোমাকে ভালোবাসি, শান্তিতে ঘুমাও।’

বয়সে ট্রাম্পের চেয়ে মাত্র দুই বছরের ছোট রবার্ট। দুই ভাইয়ের মধ্যে সম্পর্কের গাঢ়তা যে কতটা ছিল শুক্রবার তাকে হাসপাতালে দেখতে গিয়ে প্রকাশ করেছিলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট, ‘আমার একজন চমৎকার ভাই, প্রথম দিন থেকে আমাদের দারুণ একটা সম্পর্ক যা অনেক দিনের। এখন সে হাসপাতালে। আশা করি সে সুস্থ হয়ে উঠবে, কঠিন সময় পার করছে সে।’ কতদিন ধরে রবার্ট হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন কিংবা কী রোগ ছিল তা জানাননি প্রেসিডেন্ট।

সম্প্রতি নির্বাচনী সমাবেশে রবার্টকে উল্লেখ করে ট্রাম্প বলেছিলেন, ‘একজন সত্যিকারের ভালো মানুষ, যাকে ভালোবাসি আমি তাকে সম্মান জানাতে চাই। সেও আপনাদের শ্রদ্ধা করে।’ এর আগে গত জুনে নিউইয়র্কের মাউন্ট সিনাই হাসপাতালে এক সপ্তাহেরও বেশি ইনসেনটিভ কেয়ার ইউনিটে ছিলেন রবার্ট।

রবার্ট আবাসন প্রকল্পের ডেভেলপার হিসেবে কাজ করতেন এবং ট্রাম্পের প্রতিষ্ঠানের নির্বাহী কর্মকর্তা ছিলেন। ফ্রেড ও ম্যারি অ্যানি ট্রাম্প দম্পতির ঘরের পাঁচ সন্তানের মধ্যে সবচেয়ে ছোট ছিলেন বরার্ট। নিউইয়র্ক পোস্টের রিপোর্ট অনুযায়ী মার্চে তিনি বিয়ে করেন অ্যান মারি পালানকে। ২০০৭ সালে প্রথম স্ত্রী ব্লেইনের সঙ্গে বিবাহবিচ্ছেদ করেন তিনি। তাদের বিবাহিত জীবন ছিল ২৩ বছরের।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *