নিজ জন্মশহরে ৫০টি ভেন্টিলেটর দিলেন মেসি

বালক বয়সেই আর্জেন্টিনা ছেড়ে স্পেনে পাড়ি জমিয়েছিলেন বর্তমান বিশ্বের অন্যতম সেরা ফুটবলার লিওনেল মেসি। স্পেনেই গড়েছেন নিজের ফুটবল ক্যারিয়ার, এখানেই কাটান বছরের সিংহভাগ সময়। তবু নিজের জন্মভূমির প্রতি টান কখনও ভুলতে পারেননি এ ফুটবল জাদুকর।

বর্তমান ফুটবল বিশ্বে যেমন শীর্ষ আয় করা ফুটবলারদের তালিকায় রয়েছেন মেসি, তেমনি নিজের আয়কৃত অর্থ থেকে সাহায্য সহযোগিতা এবং অনুদানের ক্ষেত্রেও পিছিয়ে নেই তিনি। বিশেষ করে করোনাভাইরাসের এ সংকটময় সময়ে নিজ দেশ আর্জেন্টিনার অসহায় মানুষদের পাশে দাঁড়াচ্ছেন মেসি।

সবশেষ নিজ জন্মশহর রোজারিওর কয়েকটি হাসপাতাল মিলিয়ে মোট ৫০টি ভেন্টিলেটর দিয়েছেন তিনি। এরই মধ্যে বিশেষ ফ্লাইটে ৩২টি ভেন্টিলেটর পৌঁছে গেছে রোজারিও বিভিন্ন হাসপাতালে। বাকিগুলো শিগগিরই দিয়ে দেয়া হবে অন্যান্য হাসপাতালগুলোতে।

এবার ভেন্টিলেটর দেয়া ছাড়াও এর আগে আর্জেন্টিনায় করোনা মোকাবিলার জন্য ১০ লাখ ইউরো (প্রায় ১০ কোটি টাকা) দান করেছিলেন মেসি। এছাড়া লিওনেল মেসি ফাউন্ডেশনের মাধ্যমে বিভিন্ন চ্যারিটিমূলক কাজ নিয়মিতই করে যাচ্ছেন বর্তমান বিশ্বের অন্যতম সেরা এ ফুটবলার।

গত মে মাসে আর্জেন্টিনার বুয়েনস আয়ার্সে একটি হাসপাতালে ভেন্টিলেটরসহ বেশি কিছু চিকিৎসা সরঞ্জাম দিয়েছিলেন মেসি। সম্প্রতি ইউনিসেফের সঙ্গে যৌথ উদ্যোগে সিরিয়ার নয়টি প্রদেশের বাচ্চাদের জন্য ৫০ হাজার ৬৩০টি শিক্ষা সামগ্রী উপহার দিয়েছে লিওনেল মেসি ফাউন্ডেশন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *