কাশি দিলেই লাল কার্ড

মহামারি করোনা কবে শেষ হবে তা নিশ্চিত নয়। তাই কয়েক মাস বন্ধ থাকার পর শুরু হয়ে গেছে ইউরোপের কয়েকটি জনপ্রিয় ফুটবল লিগ। মাঠে খেলা ফিরলেও খেলোয়াড়দের নিরাপত্তা নিয়ে কিঞ্চিৎ ছাড় দেবে না লিগ কর্তৃপক্ষ। তাই করোনাকালীন ফুটবলে যুক্ত করা হয়েছে বেশকিছু নিয়ম।

এসব নিয়ম-কানুন মেনেই চলছে লা-লিগা, ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগ, সিরিআ, বুন্দেসলিগাসহ অন্যান্য সব ফুটবল লিগ। তবে খেলায় সবচেয়ে বড় প্রভাবটি পড়েছে দর্শকদের ওপর। কারণ সব টুর্নামেন্ট থেকেই মাঠে দর্শকদের প্রবেশ নিষেধ করা হয়েছে। এর সঙ্গে যোগ হয়েছে আরো কিছু বিধিনিষেধ।

বিবিসি এক প্রতিবেদনে জানায়, নিরাপত্তার কথা ভেবে এবার আরো একটি নিয়ম প্রয়োগ করতে যাচ্ছে ইংলিশ ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন। এরই অংশ হিসেবে খেলার সময় মাঠে ইচ্ছাকৃতভাবে কাশি দিলে সরাসরি লাল কার্ড দেখাবেন রেফারি। তবে অনিচ্ছাকৃতভাবে কেউ কাশি দিলে কোনো শাস্তি দেওয়া হবে না।

ইংলিশ ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন থেকে বলা হয়, কোনো খেলোয়াড় যদি মাঠে ইচ্ছেকৃতভাবে কাশি দেয়, রেফারি তাকে লাল কার্ড দিতে পারবেন। কিন্তু অনিচ্ছাকৃত কাশির জন্য কোনো শাস্তির বিধান রাখা হয়নি। তবে সতর্কতা স্বরূপৃ হলুদ কার্ড দিতে পারবেন রেফারি।

আন্তর্জাতিক ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন বোর্ড (আইএফএবি) বলেছে, বিষয়টি রেফারির সিদ্ধান্তের ওপর নির্ভর করছে। তিনি যদি মনে করেন বিষয়টি কাউকে উত্যক্ত করার জন্য করা হয়েছে তাহলে এই সিদ্ধান্ত নিতে পারবেন।

আইএফবিএ বিষয়টি আরো খোলাশা করে বলেছে, উদ্দেশ্যমূলকভাবে কাশি দেওয়া আপত্তিকর, অপমানজনক বা অবমাননাকর ভাষা কিংবা অঙ্গভঙ্গি করার শামিল।

অ্যাসোসিয়েশন বোর্ড জানায়, ‘সব ধরনের অপরাধের মত রেফারিকে অন্যান্য অপরাধের ধরন বুঝে রায় দিতে হবে। বিষয়টি যদি স্পষ্টত দুর্ঘটনাবশত হয়ে থাকে, কিংবা বেশ কিছুটা দূরত্বে কাশি দেওয়া হয়, তাহলে রেফারি ওই কাশির জন্য কোনো শাস্তি দেবেন না। তবে যদি সেটি কাছ থেকে ঘটে এবং আক্রমণাত্বক হিসেবে পরিলক্ষিত হয় তাহলে ব্যবস্থা নিতে পারবেন রেফারি।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

1 × one =

Translate »