আমিরাতের হাত ধরে আরব বিশ্বের প্রথম মহাকাশযাত্রা শুরু

আরব বিশ্বের প্রথম দেশ হিসেবে সফলভাবে মহাকাশযান উৎক্ষেপণ করল সংযুক্ত আরব আমিরাত। সোমবার সকালে জাপানের তানেগাশিমা মহাকাশকেন্দ্র থেকে মঙ্গল গ্রহের দিকে যাত্রা শুরু করেছে মহাকাশযান ‘হোপ’।

প্রায় ৫০০ মিলিয়ন কিলোমিটার পাড়ি দিয়ে ২০২১ সালের ফেব্রুয়ারিতে মঙ্গলে পৌঁছানোর কথা রয়েছে মহাকাশযানটির। আশ্চর্যজনকভাবে ওইদিনই আরব আমিরাতের ৫০তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী। ফলে হোপ সেদিন আমিরাতিদের জন্য দ্বিগুণ খুশি বয়ে আনবে বলে আশা করছেন সংশ্লিষ্টরা।

আমিরাতের মঙ্গলযাত্রার সফল সূচনাকে ‘ভাষায় অবর্ণনীয়’ বলে উল্লেখ করেছেন দেশটির উচ্চতর বিজ্ঞান বিষয়ক মন্ত্রী এবং মিশনের ডেপুটি প্রোজেক্ট ম্যানেজার সারাহ আল-আমিরি।

তিনি বলেন, এটিই আরব আমিরাতের ভবিষ্যত। আমি এই সুযোগের জন্য দেশকে ধন্যবাদ দিতে চাই।

এ কর্মকর্তা বলেন, আমরা এবার যান আলাদা হওয়া যাওয়া ও প্রথম সংকেত পাওয়ার অপেক্ষা করছি।

মহাকাশযান হোপ, বাংলায় যার নাম দাঁড়ায় আশা, এটিকে প্রকৃতপক্ষেই আরব আমিরাতের জন্য নতুন আশার প্রতীক বলে মনে করা হচ্ছে।

water.jpg

মহাকাশযানের নকশা বা তৈরির বিষয়ে আমিরাতের কোনও ধরনের পূর্ব অভিজ্ঞতা ছিল না। এর আগে শুধু যুক্তরাষ্ট্র, রাশিয়া, ইউরোপ ও ভারতই এ কাজ করতে পেরেছে। তবে তেলনির্ভর অর্থনীতির ট্যাগমুক্ত হয়ে জ্ঞান-বিজ্ঞানে এগিয়ে যাওয়ার উচ্চাকাঙ্ক্ষাই আমিরাতিদের এ চ্যালেঞ্জ নিতে উদ্বুদ্ধ করেছে।

মিশন হোপের নিয়ন্ত্রণকেন্দ্র মোহাম্মদ বিন রশিদ স্পেস সেন্টারে কাজ করছেন প্রায় সাড়ে চারশ’ মানুষ, তাদের অর্ধেকের বেশিই হচ্ছেন আমিরাতের নাগরিক।

Leave a Reply

Your email address will not be published.